1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

আবারও আফগানদের বিতাড়ন শুরু করছে জার্মানি

যে আফগান নাগরিকদের জার্মানিতে থাকার আবেদন প্রত্যাখ্যাত হয়েছে, তাঁদের দেশে পাঠিয়ে দেয়ার কর্মসূচি আবারও শুরু করতে যাচ্ছে জার্মান কর্তৃপক্ষ৷ চলতি মাসের শুরুতে এই প্রক্রিয়া স্থগিত করা হয়েছিল৷

আফগানিস্তানের কাবুলে জার্মান দূতাবাসের কাছে আত্মঘাতী বোমা হামলার পর এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল৷ সেই সময় বলা হয়েছিল, জার্মানির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পরবর্তীতে আফগানিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি বিবেচনা করে দেখবে৷ তাদের প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে, বিতাড়ন প্রক্রিয়া আবারও শুরু হবে৷ জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল বলেছিলেন, এই প্রক্রিয়া জুলাই পর্যন্ত স্থগিত থাকতে পারে৷

তবে জার্মানির সরকারি প্রচারমাধ্যম এনডিআর এবং ম্যাগাজিন ডের স্পিগেল বলছে, আগামী সপ্তাহের বুধবার লাইপশিস থেকে আফগানদের নিয়ে একটি ফ্লাইট কাবুলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিতে পারে৷

অবশ্য সরকারিভাবে এই তথ্য এখনও নিশ্চিত করা যায়নি৷

ভিডিও দেখুন 02:45

জার্মানির অনেক রাজনীতিবিদ অবশ্য আফগানদের তাঁদের দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়ার সরকারি সিদ্ধান্ত সমর্থন করছেন না৷ সেই দেশের সার্বিক নিরাপত্তা পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে তাঁরা এমন অবস্থান নিয়েছেন৷

এদিকে, চলতি মাসে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিগমার গাব্রিয়েল তালেবানের সঙ্গে শান্তি আলোচনার আহ্বান জানান৷ এই জঙ্গি গোষ্ঠীটি এখনও আফগানিস্তানের প্রায় ৪০ শতাংশ অংশ নিয়ন্ত্রণ করে বলে ধারণা করা হয়৷

পরিসংখ্যান

জার্মান পুলিশের বরাত দিয়ে ‘ডি ভেল্ট আম জন্টাগ' জানিয়েছে, চলতি বছরের এপ্রিল পর্যন্ত আবেদন প্রত্যাখ্যাত হওয়া ৮,৬২০ জন আশ্রয়প্রার্থীকে তাঁদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে৷ গত বছর ২৫ হাজারেরও বেশি জনকে ফেরত পাঠানো হয়েছিল৷

এছাড়া এ বছরের এপ্রিল পর্যন্ত ১১,১৯৫ জন আশ্রয়প্রার্থী স্বেচ্ছায় তাঁদের দেশে ফেরত গেছেন৷ গত বছর সংখ্যাটি ছিল ৫৪ হাজার ছয় জন৷ যাঁরা এভাবে দেশে চলে যেতে আগ্রহী হন, তাঁদের দেশে ফিরে যাওয়ার ভাড়াসহ অন্যান্য কিছু খরচের অর্থ দেয়া হয়৷

অ্যালিস্টেয়ার ওয়ালশ/জেডএইচ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়