1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনীর যুদ্ধাপরাধ

আফগানিস্তান যুদ্ধ সম্পর্কিত ৯২ হাজার গোপন নথিপত্র ফাঁস হয়ে যাবার ঘটনায় হোয়াইট হাউস এক চরম অস্বস্তিকর অবস্থার মধ্যে পড়েছে৷ যদিও প্রায় দশ বছর ধরে চলা এই সংঘাত সম্পর্কে খুব কমই নতুন তথ্য দিতে পেরেছে তারা৷

default

আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা অভিযান

মূলত ২০০৪ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তানে মার্কিন, ন্যাটো বাহিনী এবং বেসামরিক নাগরিকরা যে সব ঘটনার সম্মুখীন হয়েছে তাই প্রকাশ করা হয়েছে ঐ গোপন নথিপত্রে৷ আফগানিস্তানের অস্থিতিশীলতার জন্যে বেসামরিক নাগরিকদের প্রাণহানি এবং পাকিস্তান গোয়েন্দা সংস্থার সহযোগিতাকে দায়ী করা হয়েছে ঐ গোপন নথিতে৷ এ ছাড়া আফগান সরকারের দুর্নীতির বিষয়টিও ফাঁস হয়ে যাওয়া নথিপত্রে বিশেষভাবে প্রকাশ করা হয়েছে৷

গোপন দলিল প্রকাশকারী ওয়েব সাইট 'উইকিলিক্স'-এর প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান আসাঞ্জে বলেছেন, আফগানিস্তানে যে যুদ্ধাপরাধের ঘটনা ঘটছে, এইসব নথিপত্রই তার প্রমাণ৷ এদিকে গোপন নথিপত্র ফাঁস হয়ে যাবার ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র৷ যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি জার্মান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ও ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে৷ বলা হয়েছে, এর ফলে সেখানে অবস্থানরত সৈন্যদের জীবন আরও বিপদাপন্ন হয়ে যাবে৷ তবে জার্মান প্ররক্ষামন্ত্রী গিডো ভেস্টারভেলে বলেছেন, নথিপত্রে প্রকাশিত অভিযোগ মূল্যায়ন করে দেখা হবে৷

এটিকে সামরিক ইতিহাসের সবচেযে বড় গোপনীয়তা ফাঁসের ঘটনা বলে মনে করা হচ্ছে৷ উইকিলিক্স ওয়েবসাইট এই গোপন নথি প্রকাশের পর, দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস, দ্য গার্ডিয়ান, এবং জার্মান ম্যাগাজিন ডেয়ার স্পিগেলে রবিবার এই রিপোর্ট প্রকাশিত হয়৷

প্রতিবেদন: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

ইন্টারনেট লিংক