1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

আফগানিস্তানের বুশ বাজারে মার্কিন সামরিক সরঞ্জাম

সামরিক পোশাক-আশাক এবং পুলিশ ও সেনা সদস্যদের ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে এসে গেলে নিরাপত্তা কাজে নেমে সমূহ ঝুঁকির মধ্যে পড়তে হয় নিরাপত্তা কর্মীদের৷

Kabul, Afghanistan, market

আফগানিস্তানের একটি বাজার

আর এমন দশা যখন খোদ যুদ্ধপীড়িত আফগানিস্তানে তখন পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হওয়ায় স্বাভাবিক৷ অথচ আফগানিস্তানের বাজারে যে কেউ এসে কিনতে পারছে তাদের পছন্দের সামরিক পোশাক থেকে শুরু করে পিস্তল বহন করার কভার পর্যন্ত অনেক কিছুই৷ আবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশের নামে স্থানীয় একটি বাজার রয়েছে৷ অতি পরিচিত সেই বুশ বাজারে পাওয়া যায় মার্কিন সৈন্যদের পোশাক, বুট, বাইনোকুলার্স, বিভিন্ন ধরণের ছুরি এবং অন্ধকারে দেখার জন্য ব্যবহৃত চশমাও৷

আফগানিস্তানে জঙ্গিদের হামলার ধরণ এবং কৌশলের দিকে একটু নজর দিলেই দেখা যায়, মাঝে মাঝেই জঙ্গিরা নারীদের বোরকা কিংবা পুলিশের পোশাক পরে নিরাপত্তা কর্মীদের একেবারে কাছে গিয়ে নিজেকে উড়িয়ে দিচ্ছে৷ আবার কখনো তারা সেনা বাহিনীর পোশাক পরে হামলা চালাচ্ছে সেনা ঘাঁটি কিংবা বিমানবন্দরেও৷ ফলে বিশ্লেষকদের আশঙ্কা, খোলাবাজারে সামরিক পোশাক এবং অন্যান্য সরঞ্জাম কেনার সুযোগ জঙ্গিদের কাজকে সহজতর করে দিচ্ছে৷

Afghan, woman, bazaar in Kabul

বোরকার আড়ালে লুকিয়ে থাকতে পারে কোন জঙ্গিও

তবে বিক্রেতারা বলছেন, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের ব্যবহারের কোন কিছু যদি নষ্ট হয়ে যায় কিংবা হারিয়ে যায়, তখন যেন তারা সেগুলো সহজে কিনতে পারেন সে জন্যই এগুলোর ব্যবসা থাকা দরকার৷ এমনকি তাদের অধিকাংশেরই রয়েছে এসব সরঞ্জামাদি বিক্রি করার বৈধ কাগজপত্র৷ রয়েছে ব্যবসায়ী সমিতির কাছ থেকে নেওয়া ছাড়পত্রও৷

আবার এমন সরঞ্জাম কেনার দোকান দেখা গেছে আফগান প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই এর সরকারি বাসভবনের মাত্র কয়েকশ' মিটার দূরেই৷ তবুও দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেমারি বাশারি বললেন, ‘‘সামরিক সরঞ্জাম এবং পুলিশ ইউনিফর্মস কেনা এবং বেচা সম্পূর্ণ অবৈধ এবং সরকার এ ধরণের ব্যবসা বন্ধে পদক্ষেপ অব্যাহত রাখবে৷''

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই
সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক