1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আফগানিস্তানের কান্দাহারে জঙ্গি হামলা, নিহত ৩০

আফগানিস্তানের কান্দাহারে শনিবার আবারো বিস্ফোরণ৷ বেসামরিক নাগরিকসহ নিহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন৷ তালেবানের জন্মভূমি বলে কুখ্যাত আফগানিস্তানের এই অঞ্চলে মার্কিন অভিযানও আসন্ন৷

default

ফাইল ফটো

লক্ষ্য জেলখানা

আফগানিস্তানের কান্দাহারে শনিবার চার আত্মঘাতী হামলাকারী বিস্ফোরণ ঘটায়৷ যাতে নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০ জন, আহত ৪০ জন৷ হতাহতদের মধ্যে বেসামরিক নাগরিক এবং পুলিশ রয়েছেন৷ এ পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, হামলাকারীদের মূল লক্ষ্য ছিল কান্দাহারের কারাগার৷ কারণ সেখানে বন্দী আছে বেশ কিছু তালেবান জঙ্গী৷ তবে, কান্দাহারের প্রাদেশিক সরকারের প্রধান আহামেদ ওয়ালি কারজাই জানিয়েছেন, হামলার পরও কারাগার সুরক্ষিত আছে৷ পালাতে পারেনি কোন জঙ্গি৷

এখানে উল্লেখ্য যে, ২০০৮ সালেও কান্দাহারের এই কারাগারে হামলা চালায় জঙ্গিরা৷ তখন পালিয়ে যায় হাজারখানেক কারাবন্দী, যাদের মধ্যে ৪ শত তালেবান জঙ্গিও ছিল৷

তালেবানের দায় স্বীকার

তালেবান জঙ্গিরাই চালিয়েছে এই হামলা৷ ইন্টারনেটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে জঙ্গি গোষ্ঠীটি জানিয়েছে, ন্যাটো কমান্ডার যারা কিনা কান্দাহারে বড় অভিযানের পরিকল্পনা করছেন তাদেরকে সতর্ক করতেই এই বোমা হামলা৷

তালেবান জঙ্গিদের জন্মভূমি হিসেবে কুখ্যাত কান্দাহারে আসন্ন বসন্তে বড় ধরণের জঙ্গি বিরোধী অভিযানের পরিকল্পনা করছে ন্যাটো বাহিনী৷ আফগানিস্তানে ন্যাটো প্রধান স্ট্যানলি ম্যাকক্রিস্টাল জানিয়েছেন, কান্দাহারে হামলার জন্য আরো মার্কিন সেনার অপেক্ষায় আছেন তাঁরা৷ এখন পর্যন্ত যা খবর, তাতে গ্রীষ্মে আরো ৩০ হাজার মার্কিন সেনা পৌছাঁবে আফগানিস্তানে৷

হেলমান্দে কারজাই

ফেব্রুয়ারির ১৩ তারিখে আফগানিস্তানের হেলমান্দ প্রদেশে বড় ধরণের অভিযান শুরু করেছিল মার্কিন নেতৃত্বাধীন আন্তর্জাতিক বাহিনী৷ ইতিমধ্যে সেখানে অভিযান সফল হয়েছে বলেও দাবি তাদের৷ এখন সেখানকার উন্নয়নে উদ্যোগী হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র৷ এই প্রসঙ্গে মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রবার্ট গেটস জানান, চাকরি এবং কৃষিখাতের উন্নয়নে নানা কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে৷ বাজার এবং স্কুলও পুনরায় খুলে দেওয়া হচ্ছে৷ অন্যত্র চলে যাওয়া পরিবারগুলোও ঘরে ফিরতে শুরু করেছে৷ আফগানিস্তানে মুশতারাক-এর মতো আরো অনেক অভিযান আসন্ন৷ আফগানিস্তানের মানুষের সুরক্ষায় এসব অভিযান প্রয়োজন৷

এদিকে, শনিবার হঠাৎই হেলমান্দে হাজির হন আফগান প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই, মতবিনিময় করেন বেশ কয়েকজন উপজাতীয় নেতার সঙ্গে৷

প্রতিবেদক: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়