1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আন্তর্জাতিক কমিশন ৯ ত্রাণকর্মী হত্যাকান্ড তদন্ত করবে

শনিবার আটক করে নিজেদের বন্দরে নিয়ে যাবার পর গাজার মানুষের জন্য ত্রাণবাহী আইরিশ জাহাজে থাকা মানবাধিকার কর্মী এবং ক্রু’সহ ১৯ জনকে বহিষ্কার করল ইসরায়েল৷ তবে ত্রানবাহী জাহাজের ভাগ্যে কি রয়েছে তা স্পষ্ট নয়৷

default

মালয়েশিয়ান ত্রাণকর্মীদের বিমানবন্দরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে

জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন আন্তর্জাতিক কমিশনের মাধ্যমে ৯ ত্রাণকর্মীকে হত্যার বিষয়টি তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন৷

গতকাল থেকেই চলছে জাহাজটি নিয়ে নানা নাটকীয়তা৷ গাজার জন্য ত্রাণবাহী এম ভি ব়্যাচেল মেরিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলীয় আশদদ বন্দরে৷ জানা যাচ্ছে, জাহাজের ক্রু'সহ ১৯ জনই ইসরায়েলের দেওয়া বহিষ্কার আদেশ সম্বলিত মুচলেকায় সই করেছেন৷ তাঁদেরকে স্থানীয় একটি বিমানবন্দর থেকে নিজ নিজ দেশ পাঠিয়ে দেওয়া হবে৷ এই ১৯ জনের মধ্যে রয়েছেন, ৬ জন মালয়েশিয়, একজন কিউবা, একজন ব্রিটিশ, ছয়জন ফিলিপিন্সের এবং পাঁচজন আইরিশ নাগরিক৷ শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৭ জনকে বিমানে চড়িয়ে দেয়া হয়েছে জর্ডানের উদ্দেশ্য৷

কেন বারবার ইসরায়েল আটকে দিচ্ছে ত্রাণবাহী জাহাজ?

আসলে এটা ইসরায়েলের সিদ্ধান্ত৷ তারা বলছে যে, তাদের নৌ অবরোধ ভেঙ্গে কেউ গাজায় যেতে পারবে না৷ বিশ্ব নেতৃবৃন্দ বহুবার এই অবরোধ উঠিয়ে নেওয়ার জন্য আর্জি জানিয়েছেন৷ কিন্তু সে কথায় কর্ণপাত করে নি ইসরায়েল৷

MV Rachel Corrie

গাজায় ত্রাণ প্রয়োজন কেন?

গাজা একটি উপত্যকা৷ ইসরায়েলের অবরোধ সবদিকে৷ গাজার মানুষের যা প্রয়োজন, তার অন্তত ৮০ ভাগের যোগান কিন্তু আসে ত্রাণের মাধ্যমেই৷ এক কথায় বলা চলে গাজাবাসী সর্বাংশে সেই ত্রাণের উপর নির্ভরশীল৷ মূলত স্থলপথ দিয়েই সেখানে ত্রাণ আসে৷ কিন্তু স্থলপথের চেয়ে জলপথে বেশি পণ্য পরিবহণ করা যায়৷ তাই বন্ধু রাষ্ট্রগুলো এবং আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থাগুলো ঐ পথ ব্যবহার করতে উদ্যোগী হচ্ছে৷ কিন্তু গত সোমবার তুরস্ক থেকে আসা এমন এক জাহাজকে আটকে দেয় ইসরায়েল৷ এবং ত্রাণকর্মীদের উপর গুলিবর্ষণ করা হলে ৯ জন নিহত হয়৷

বিশ্ব নেতৃবৃন্দ কী বলছেন

জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে ফোন করেছেন৷ বান কি মুন আন্তর্জাতিক কমিশনের মাধ্যমে ৯ ত্রাণকর্মীকে হত্যার বিষয়টি তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন৷ ইসরায়েলি মন্ত্রিসভায় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে বলে এর উত্তরে জানিয়েছেন নেতানিয়াহু৷ এদিকে, কিছুক্ষণ আগে ইরান জানিয়েছে, তাদের জাতীয় বিপ্লবী বাহিনীর সদস্যরা গাজাগামী ত্রানবাহী জাহাজগুলোর নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করবে৷ সব মিলিয়ে আবার মধ্যপ্রাচ্যের অবস্থা সংকটাপন্ন হয়ে উঠছে বলেই সংশ্লিষ্টদের অভিমত৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়