1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

আডিডাসের স্পন্সরশিপ বাড়ল ২০৩০ পর্যন্ত

জার্মান ক্রীড়া পোশাক নির্মাতা প্রতিষ্ঠান আডিডাস ব্যবসার মাঠে হারিয়ে দিল মার্কিন প্রতিষ্ঠান নাইকি-কে৷ ২০৩০ সাল পর্যন্ত ফুটবল বিশ্বকাপের ‘অফিশিয়াল স্পন্সর’ হতে যাচ্ছে আডিডাস৷

জার্সি, জুতা, ক্যাপ – প্রিয় খেলোয়াড় বা দলের এসব পোশাক সংগ্রহের উন্মাদনা থাকে ফুটবল ভক্তদের মধ্যে৷ মেসি বা রোনাল্ডো – প্রিয় খেলোয়াড়রা কোন ব্র্যান্ডের পোশাক পড়েন সেটির দিকে নজর সবার৷ এ কারণেই ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবলেও ব্র্যান্ড একটা উল্লেখযোগ্য বিষয়৷

অবশ্য বিশ্বকাপে ‘অফিশিয়াল স্পন্সর' হিসেবে বরাবরই হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে থাকে জার্মানির আডিডাস এবং যুক্তরাষ্ট্রের নাইকি৷ এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি৷ তবে শেষ বাজিটা গেছে আডিডাসের দখলে৷

২০১৮ থেকে ২০৩০ পর্যন্ত চারটি টুর্নামেন্টে ভলান্টিয়ারদের ইউনিফর্ম এবং বল যোগানোর ব্যাপারে ফিফার সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে আডিডাস৷ বিভিন্ন ভেন্যুতে নিজেদের বিজ্ঞাপন দেয়ার কাজটিও চুক্তির আওতায় রয়েছে৷ সেইসাথে বিশ্বকাপের বিভিন্ন পন্য নিজেদের ব্র্যান্ড নাম ব্যবহার করে বিক্রি করতে পারবে জার্মান কোম্পানিটি৷

ফিফার মার্কেন্টিং পরিচালক থিয়েরি ভাইল বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে জানান, আডিডাস বরাবরই ফিফা বিশ্বকাপের সঙ্গে যুক্ত থাকতে চায় এবং ১৯৭০ সাল থেকে এটি বিশ্বকাপ টুর্নামেন্টগুলোতে সুনামের সঙ্গে কাজ করেছে৷

এর আগে ২০০৫ সালে আডিডাসের সঙ্গে ফিফার চুক্তি হয়েছিল দুইটি টুর্নামেন্টে, ২০১০ বিশ্বকাপ এবং আগামী বছর হতে যাওয়া ব্রাজিল বিশ্বকাপের জন্য৷ সেই চুক্তির অর্থ ৩৫ কোটি মার্কিন ডলার৷ তবে এবারে কত ডলারে চুক্তি হয়েছে, সে বিষয়ে বিস্তারিত জানায়নি আডিডাস৷

ব্রাজিল বিশ্বকাপ শুরুর আগেও আডিডাসের ব্যবসা রমরমা৷ গত বিশ্বকাপে যেখানে আডিডাস তাদের বল বিক্রি করেছিল ১.৫ বিলিয়ন ডলারে, এবারে বিশ্বকাপ শুরুর আগেই তাদের বল বিক্রির পরিমাণ ২ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে৷ এমনকি আডিডাসের বিশ্বকাপ জার্সি এবং বুট এ বছরের শেষ তিন মাসে রেকর্ড পরিমাণ বিক্রি হবে বলে আশা করছে সংস্থাটি৷

এপিবি/ডিজি (রয়টার্স, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন