1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

আডিডাস’এর এক ইউরোর জুতো

জার্মান ক্রীড়াপণ্য প্রস্তুতকারী সংস্থা আডিডাস সস্তায় জুতো বিক্রি করেছে বাংলাদেশে৷ লক্ষ্য - উন্নয়নশীল দেশগুলোর দরিদ্র মানুষদের কাছে স্বল্পমূল্যের জুতো পৌঁছে দেয়া৷ জার্মান দৈনিক ‘হান্ডেল্সব্লাট’ আলোকপাত করেছে এ বিষয়ে৷

adidas, Superstar, Köln, বাংলাদেশ, জার্মানি, আডিডাস, আডিডাস, এক ইউরো, জুতো

ফাইল ছবি

এক মডেল প্রকল্পের আওতায় আডিডাস বাংলাদেশে পাঁচ হাজার জোড়া জুতো বিক্রি করেছে৷ এক ধরণের স্যান্ডেল-শু৷ আডিডাস'এরই অঙ্গ সংস্থা রিবক'এর তকমা লাগানো জুতো এগুলো৷ বাংলাদেশে স্পোর্টস শু'এর বাজারে রিবক অগ্রগামী৷ এই স্যান্ডেল-শু বিক্রি হয়েছে ৮০ থেকে ১২০ বাংলাদেশী টাকায় - ইউরোর হিসেবে যা কিনা ৮১ সেন্ট থেকে ১ ইউরো ২২ সেন্ট৷ অর্থনীতি ও ব্যবসা সংক্রান্ত জার্মান দৈনিক হান্ডেল্সব্লাট লিখছে:

রিবক'এর চলতি মডেল বদলিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই স্যান্ডেল-শু৷ আডিডাস জানিয়েছে, মাত্র তিন দিনের মধ্যে সব জুতো বিক্রি হয়ে যায়৷ ঢালাও উৎপাদনের জন্য মডেলটির আরো একটু রদবদল করা হবে যাতে দাম আরও কম হয়৷ পরীক্ষিত মডেলটির উৎপাদন খরচ দাঁড়িয়েছিল বিক্রির দামের চেয়ে অনেক বেশি৷

হান্ডেল্সব্লাট পত্রিকা এই প্রকল্পের লক্ষ্য প্রসঙ্গে লিখেছে: স্বল্পমূল্যে এরকম জুতো বিক্রি করে আডিডাস বিকাশমুখী দেশগুলোতে তার সামাজিক সংশ্লিষ্টতা জোরদার করতে চায়৷ একই সঙ্গে সেখানকার দরিদ্র মানুষরা কী ধরণের জিনিস কিনতে অভ্যস্ত সে সম্পর্কেও তথ্য সংগ্রহ করতে এবং বিপণনের উপযুক্ত পথও পরীক্ষা করে দেখতে আগ্রহী এই কোম্পানি৷ সমৃদ্ধির হার বাড়তে থাকার সাথে তৃতীয় বিশ্বের কোটি কোটি দরিদ্র মানুষ একদিন মধ্যবিত্ত শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত হলে বিশাল এক বাজার তৈরি হবে৷ সেই প্রত্যাশাটাও কাজ করেছে ভিতরে ভিতরে৷

আডিডাস'এর এই প্রকল্পের সঙ্গে আজকের ‘সোশাল বিজনেস' সংক্রান্ত ধ্যানধারণার একটা যোগ আছে বলে জানিয়েছে হান্ডেল্সব্লাট পত্রিকা৷ দুবছর আগে বাংলাদেশের নোবেল শান্তি পুরস্কারজয়ী মুহাম্মদ ইউনুস'এর সঙ্গে আডিডাস-প্রধান হ্যার্বার্ট হাইনার'এর সাক্ষাতের মধ্য দিয়েই এই প্রকল্পের সূচনা৷ বছর কয়েক হল ইউনুস ‘সোশাল বিজনেস' অর্থাৎ সমাজকল্যাণমুখী ব্যবসার কথা বলছেন জোরেশোরে৷ পত্রিকা লিখছে:

ঢালাও উৎপাদন কবে শুরু করবে আডিডাস এবং তা বাংলাদেশেই শুরু হবে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়৷ এপর্যন্ত কোম্পানি সেখানে কোন জুতো তৈরি করায়নি৷ পরীক্ষামূলক মডেলটি নেয়া হয়েছে ইন্দোনেশিয়া থেকে৷ এই উচ্চাভিলাষী প্রকল্পটি অবশ্য আডিডাস'এর জন্য বিপণনের সমস্যা তৈরি করতে পারে৷ কেননা তাকে অবশ্যই দেখতে হবে, তার স্বল্পমূল্যের জুতোর কারণে স্থানীয় জুতোর বাজার যেন নষ্ট না হয়৷

ভাষান্তর: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন