1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আগুনের সঙ্গে যুদ্ধ করছে রাশিয়া

রাশিয়ায় দাবানল ছড়িয়ে পড়ছে৷ আগুন নেভাতে কাজ চলছে বিরামহীন৷ কিন্তু এরপরও তা সামলাতে বেগ পেতে হচ্ছে অগ্নিনির্বাপন বাহিনীকে৷ এখন জনসাধারণকেও সর্বশক্তি নিয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছে রুশ সরকার৷

default

দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে রাশিয়ায়

রাশিয়ায় এবার প্রচণ্ড গরম পড়েছে৷ এই রকম তাপদাহ নিকট অতীতে আর দেখেনি কেউ৷ আর এই তাপদাহের মধ্যেই দেখা দিয়েছে দাবানল৷ বনভূমির এই আগুন চলে আসছে লোকালয়েও৷ এরই মধ্যে মারা গেছে ৪০ জন৷

অগ্নিনির্বাপণ বাহিনীর কর্মকর্তারা বলছেন, আগুন নেভানো কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ একস্থানে আগুন নেভানো হয় তো আরেক স্থানে জ্বলে উঠে৷ রাশিয়ার জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা ভ্লাদিমির স্তেফানভ বলেন, ‘‘আগুনের সঙ্গে রীতিমতো যুদ্ধ চলছে৷ দিন-রাত কাজ করছে কর্মীরা৷ ভয়াবহ অবস্থা পার করতে হচ্ছে৷''

রুশ প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ গতকালই মধ্য রাশিয়ার মস্কোসহ সাতটি অঞ্চলে জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দেন৷ এই অঞ্চলগুলোতে দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন৷ পুড়েছে ২ হাজারের মতো বাড়ি৷ রুশ প্রেসিডেন্ট বেতার ও টিভিতে দেওয়া এক ভাষণে বলেন, ‘‘এখন সবচেয়ে বেশি যেটা গুরুত্বপূর্ণ, তা হচ্ছে প্রাণহানি ঠেকানো৷ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এবং সেনাবাহিনীকে বলা হয়েছে, আগুন নেভাতে ঝাঁপিয়ে পড়ার জন্য৷ আমাদের সর্বশক্তি নিয়ে কাজ করতে হবে৷ আগুনে যারা বাড়ি-ঘর হারিয়েছে, তাঁদের মাথার ওপর ছাদ তৈরি করে দিতে হবে৷ আর নিয়ম কানুনের বেড়াজালে তাতে যেন দেরি না হয়৷''

রুশ কর্মকর্তারা মঙ্গলবার জানিয়েছেন, অন্তত ৫০০টি স্থানে এখনো আগুন জ্বলছে৷ এর মধ্যে সোমবার ২০০টি স্থানে নতুন করে আগুন জ্বলে উঠেছে৷ আগুন নেভাতে সমতলে যেমন কাজ চলছে, তেমনি বিমান থেকেও পানি ঢালা হচ্ছে৷ আগুনের সঙ্গে এই যুদ্ধে আছেন দেড় লাখ কর্মী৷

অগ্নি নির্বাপণ কাজে স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী নামানোর আভাস দিয়েছেন রুশ প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন৷ তিনি বলেছেন, ‘‘সব বাহিনীরই কিছু সীমাবদ্ধতা থাকে৷ এই অবস্থা চলতে থাকলে আমাদের স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী নামাতে হবে৷ সেজন্য সবাইকে তৈরি থাকতে হবে৷''

সাতটি রাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করা হলেও ছোট-বড় আগুন জ্বলছে ১৭টি অঞ্চলে৷ সবচেয়ে শোচনীয় অবস্থা নিজনি নোভগোরভ অঞ্চলে৷ সেখানে মারা গেছে ১৯ জন৷ এছাড়া মস্কো, ভোরেনজ, লিপেস্তক, রিয়াজান অঞ্চলের পরিস্থিতিও খারাপ৷ নভোগোরভ অঞ্চলে একটি পরমাণু স্থাপনার কাছেই দেখা দিয়েছে দাবানল৷ আগুন যাতে তা গ্রাস করতে না পারে, সে জন্য প্রাণপণ চেষ্টা চলছে৷

কয়েক সপ্তাহের ভয়াবহ তাপদাহ আর বৃষ্টিহীন অবস্থাই এই দাবানলের কারণ বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা৷ তবে আবহাওয়ার উন্নতির কোনো আভাস মিলছে না৷ বরং আবহাওয়া বিভাগ বলছে, মস্কোসহ বিভিন্ন স্থানে এই সপ্তাহেই তাপমাত্রা ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে গিয়ে ঠেকতে পারে৷ তার মানে দাঁড়ায়, সামনে আরো কঠিন সময় অপেক্ষা করছে রাশিয়ার জন্য৷

প্রতিবেদন: মনিরুল ইসলাম

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল ফারূক

ইন্টারনেট লিংক