1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আগামী সপ্তাহের মধ্যে জরুরি আইন বাতিল: সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট

অবশেষে বিক্ষোভকারীদের অন্যতম প্রধান একটি দাবি মেনে নেবার ঘোষণা করলেন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ৷ আগামী সপ্তাহের মধ্যেই জরুরি আইন তুলে নেয়ার কথা বলেছেন তিনি৷

default

ভাষণ দিচ্ছেন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট

জরুরি আইন

নতুন মন্ত্রিসভার উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট আসাদ৷ যেটা টেলিভিশনে প্রচারিত হয়েছে৷ তিনি বলেছেন জরুরি আইন বিষয়ক জুডিশিয়াল কমিশন কয়েকটি প্রস্তাব তৈরি করেছে৷ যেটা শীঘ্রই সরকারের কাছে জমা দেয়া হবে৷ এবং এর প্রেক্ষিতে আগামী সপ্তাহের মধ্যেই এই আইন বাতিল করে নতুন আইনের ঘোষণা দেয়া হবে৷ উল্লেখ্য, গত প্রায় ৫০ বছর ধরে এই আইনটি সিরিয়ায় বলবৎ রয়েছে৷ এর ফলে পাঁচজনের বেশি লোক একসঙ্গে জড়ো হতে পারে না৷ এছাড়া সন্দেহজনক যে কাউকে ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা যায়৷ আর মানুষের ব্যক্তিগত যোগাযোগ পর্যবেক্ষণ ও গণমাধ্যমের উপরও হস্তক্ষেপ করা যায় এই আইনের বলে৷

অন্যান্য বিষয়

প্রেসিডেন্ট আসাদ বিক্ষোভে নিহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন৷ এবং বলেছেন, সিরিয়া তাদের শহীদ বলে মনে করে৷ এছাড়া রাজনৈতিক সংস্কারের কথাও বলেছেন তিনি৷ এ ব্যাপারে তিনি একটি খসড়া আইনের উল্লেখ করেন৷ যেটাতে রাজনীতিতে বহু দলের অংশগ্রহণের কথা বলা হয়েছে৷ গণমাধ্যম আইন আরও আধুনিক করার কথাও বলেছেন প্রেসিডেন্ট আসাদ৷ তবে রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তির ব্যাপারে তিনি কোনো মন্তব্য করেন নি৷ যেটা বিক্ষোভকারীদের অন্যতম একটি দাবি ছিল৷

প্রতিক্রিয়া

আসাদের ভাষণের পর জনগণের প্রতিক্রিয়া খবর এখনো পাওয়া যায় নি৷ কারণ সিরিয়া থেকে সংবাদ সংগ্রহ করা অনেকটা কঠিন৷ তবে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইলিয়াম হেগ জরুরি আইন বিষয়ে প্রেসিডেন্ট আসাদের বক্তব্যকে স্বাগত জানিয়েছেন৷ তবে বিক্ষোভ করতে গিয়ে যাদের কারণে প্রায় ২০০ লোকের মৃত্যু হয়েছে তাদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়