1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

আই ওয়ে ওয়ে’র সঙ্গে দেখা করেছেন তার স্ত্রী

চীনের অন্তরীণ শিল্পী আই ওয়ে ওয়ে-কে সপ্তাহান্তে তাঁর স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷ এপ্রিলের ৩ তারিখে তাঁকে গ্রেপ্তার করার পর এই প্রথম ওয়ে ওয়ে-কে তাঁর পরিবারের সদস্যের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেওয়া হলো৷

A pro-democracy protesters hold photos of detained Chinese artist Ai Weiwei during a protest to demand the release of the outspoken government critic, in Hong Kong, Monday, May 2, 2011. (Foto:Vincent Yu/AP/dapd)

আই ওয়ে ওয়ে’র মুক্তির দাবিতে হংকংয়ে বিক্ষোভ

চীনের অন্তরীণ শিল্পী আই ওয়ে ওয়ে-কে সপ্তাহান্তে তাঁর স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷ এপ্রিলের ৩ তারিখে তাঁকে গ্রেপ্তার করার পর এই প্রথম ওয়ে ওয়ে-কে তাঁর পরিবারের সদস্যের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেওয়া হলো৷

আই ওয়ে ওয়ে-র মা, গাও ইং এবং বোন গাও গে জার্মান সংবাদ সংস্থা ডিপিএ-কে টেলিফোনে এই খবর জানিয়েছেন৷ তিনি বলেছেন, ওয়ে ওয়ে'র স্ত্রী লু কুইং বলেছেন, তাঁর স্বামী নিজের স্বাস্থ্য ‘‘ঠিক'' আছে বলে জানালেও, তাঁর বিরুদ্ধে আসলে কী অভিযোগ আনা হয়েছে তা এখনও তাঁর কাছে স্পষ্ট নয়৷ গাও বলেন,‘‘আগাম কোন কিছু না জানিয়ে গতকাল বিকেলে লু-কে হঠাৎ করেই পুলিশ স্টেশনে যেতে বলা হয়৷'' আই ওয়ে ওয়ে'র বোন বলেন, লু পুলিশ স্টেশনে যাবার পরে তাকে ওয়ে'এর সঙ্গে দেখা করতে বলা হয়৷

FILE - In this Nov. 17, 2010 file photo, artist Ai Weiwei arrives at the Wenyuhe court to support fellow artist Wu Yuren during his trial in Beijing. China's Foreign Ministry removed all references to Ai from its official transcript of a news conference on Thursday, April 7, 2011 given by its spokesman, in an apparent sign it wants to stifle discussion of the case. (AP Photo/Andy Wong, File)

আই ওয়ে ওয়েক এপ্রিলের ৩ তারিখে গ্রেপ্তার করা হয়

এদিকে লু, গাওকে বলেছেন, ‘‘নানগাও পুলিশ স্টেশন থেকে তাকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল তা তিনি বলতে পারবেন না, কারণ তিনি দেখতে পারেননি৷ এবং সেই অজ্ঞাত স্থানেই তিনি রবিবার বিকেলে তাঁর স্বামীর সঙ্গে দেখা করেছেন৷''

গ্রেপ্তার করার পর থেকে আই সম্পর্কে খুব কম তথ্যই দিচ্ছে চীন সরকার৷ সরকারের পক্ষ থেকে যে বিবৃতিটি ইস্যু করা হয়েছে, তাতে বলা হয়েছে, ‘‘অর্থনৈতিক অপরাধ'' সংক্রান্ত কারণেই তাঁর তদন্ত হচ্ছে৷ ৫৩ বছর বয়সি শিল্পী আই'এর গ্রেপ্তারে বিক্ষোভ হয়েছে, সমালোচনা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র এবং জার্মানির মত পশ্চিমা দেশগুলোতে৷ ইউরোপীয় পরিষদের প্রেসিডেন্ট হ্যারমান ফান রম্পয় বলেছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন চলতি সপ্তাহেই ঐ গ্রেপ্তারের ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করবে৷

বেইজিং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তারের ছয় সপ্তাহ পরে, তাঁর গ্রেপ্তার নিয়ে তুমুল আন্তর্জাতিক বিতর্কের মুখে, স্ত্রী লু কুইং-এর সঙ্গে ঐ বৈঠকের আয়োজন করে চীন সরকার৷ আই'এর বোন গাও গে বলেছেন, লু কুইং কে তার স্বামীর সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেওয়ার মধ্যে দিয়ে মনে হচ্ছে, কর্তৃপক্ষ কিছুটা নমনীয় হয়েছে৷ তিনি বলেন, ‘‘তাকে নির্যাতন করা হয়, এই মর্মে যেসব কথা শোনা যাচ্ছিল, তা আমাদের জন্যে সহ্য করা কঠিন ছিল৷ তবে এখন তাকে দেখার পরে মনে হচ্ছে, তার অবস্থা ভালো৷''

প্রতিবেদন: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

নির্বাচিত প্রতিবেদন