1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

আইসল্যান্ডেই এই৷ ইয়েলোস্টোন ফাটলে কি হবে?

আইসল্যান্ডের আগ্নেয়গিরি থেকে ছাই বেরিয়ে ইউরোপের আকাশে বিমান চলাচল প্রায় বন্ধ করে দিয়েছে৷ ওদিকে বিশেষজ্ঞরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েলোস্টোন ন্যাশনাল পার্কের ‘পরম আগ্নেয়গিরি’-টি বিস্ফোরিত হলে কি হবে, সেই দুঃস্বপ্ন দেখছেন৷

default

ইয়েলোস্টোনের গর্ভে কি আছে?

তবে ইয়েলোস্টোনের বিস্ফোরণ ঘটতে এখনও হাজার হাজার বছর বাকি থাকতে পারে৷ এখানে শেষ বিস্ফোরণটি ঘটেছিল প্রায় ৬,৪০,০০০ বছর আগে৷ এবং তারও আগের দু'টি বিস্ফোরণ ঘটে ১৩ লক্ষ এবং ২১ লক্ষ বছর আগে৷ সে অনুযায়ী আরো ৯০,০০০ বছর পার হওয়ার আগে ইয়েলোস্টোনে আবার বিস্ফোরণ ঘটার কোনো সম্ভাবনা নেই৷ কিন্তু বিপদ হল এই যে, আগ্নেয়গিরিরা অঙ্কের হিসেব মেনে চলে না৷

আবার মেনে চলেও বটে৷ যেমন কিছু কিছু আগ্নেয়গিরি প্রতি দশ বছর অন্তর বিস্ফোরিত হয়৷ অপরাপর আগ্নেয়গিরি আবার দীর্ঘকাল ধরে সুপ্ত থাকে৷ এবং আসন্ন বিস্ফোরণের বিভিন্ন লক্ষণ দেখা দেয়৷ যেমন তরল ম্যাগমা বেড়ে আগ্নেয়গিরিটি ফুলে উঠতে পারে, যে ফোলাটা জিপিএস পদ্ধতিতে সহজেই ধরা পড়ে৷ এছাড়া থাকে ভূকম্পন, পরিভাষায় যাকে বলে সিসমিসিটি৷

তবে ইয়েলোস্টোনের বিস্ফোরণের ফলশ্রুতি যে ব্যাপক, মারাত্মক এবং অভাবনীয় হবে, সে-বিষয়ে সব বিজ্ঞানীরাই একমত৷ সাড়ে ছ'লক্ষ বছর আগে ইয়েলোস্টোনের শেষ বিস্ফোরণে আনুমানিক ১,০০০ ঘনকিলোমিটার ছাই-পাথর বেরিয়েছিল৷ খ্রিষ্টপরবর্তী ৭৯ সালে মাউন্ট ভিসুভিয়াসের যে বিস্ফোরণে পম্পেয়াই শহরটি নিশ্চিহ্ন হয়, ইয়েলোস্টোনের বিস্ফোরণটি ছিল তার চেয়ে ৩,০০০ গুণ বেশী শক্তিশালী৷ সে ধরণের একটি বিস্ফোরণ আজ ঘটলে, যুক্তরাষ্ট্রে বিপুল সংখ্যক মানুষের জীবনহানি ঘটবে, শস্য বিনষ্ট হবে. পানীয় জল দূষিত হবে৷

বিগত দুই শতাব্দীর বৃহত্তম আগ্নেয়গিরি বিস্ফোরণটি ঘটে ১৮১৫ সালে, ইন্দোনেশিয়ার মাউন্ট টাম্বোরায়৷ সে' বিস্ফোরণে অন্তত ৭১,০০০ মানুষ প্রাণ হারায় এবং এক বছরের জন্য সারা বিশ্বের তাপমাত্রা হ্রাস পায়৷ প্রায় ৭৩,০০০ বছর আগে সুমাত্রার টোবা আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণে নাকি মানবজাতির অধিকাংশ ধ্বংস হয়েছিল, অন্তত সে-আমলের কঙ্কাল নাকি সে'কথাই বলে৷

প্রতিবেদক: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: ফাহমিদা সুলতানা

সংশ্লিষ্ট বিষয়