আইভরি কোস্টে মৃত্যুঝুঁকিতে বাংলাদেশের পুলিশ সদস্যরা | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 11.04.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

আইভরি কোস্টে মৃত্যুঝুঁকিতে বাংলাদেশের পুলিশ সদস্যরা

শেয়ার বাজার কেলেঙ্কারির তদন্ত প্রতিবেদন নিয়ে জল্পনা-কল্পনা, ব়্যাবের বিরুদ্ধে মামলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অবসরের বয়সসীমা বৃদ্ধি এবং বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে অবস্থানের খবরগুলো শিরোনাম হয়েছে আজকের পত্রিকায়৷

default

শেয়ার বাজার কেলেঙ্কারির তদন্ত প্রতিবেদন নিয়ে জল্পনা-কল্পনা

প্রায় সব পত্র-পত্রিকার শিরোনাম হয়েছে শেয়ার বাজারের কেলেঙ্কারির তদন্ত প্রতিবেদন প্রসঙ্গ৷ দৈনিক কালের কণ্ঠ একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে এই বিষয়ে৷ যেমন শিরোনাম করা হয়েছে, ‘রক্ষকরাই শেয়ার ভক্ষক', ‘নাম বাদ যাবে না অপ্রমাণিত তথ্য সম্পাদন করা হবে - অর্থমন্ত্রী'৷ দৈনিক জনকণ্ঠ শিরোনাম করেছে, ‘তদন্ত প্রতিবেদন আগামী সপ্তাহে প্রকাশ করা হবে - অর্থমন্ত্রী'৷ আবার অর্থমন্ত্রীর আরেকটি মন্তব্য ‘মন্ত্রণালয় অহেতুক কারো চরিত্র হনন চায় না' - এটিকে শিরোনাম করেছে বার্তা সংস্থা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডট কম৷ তবে অর্থমন্ত্রী আগামী সপ্তাহে প্রকাশ করতে চাইলেও বার্তা সংস্থাটি তদন্ত প্রতিবেদন ইতিমধ্যে প্রকাশ করতে শুরু করেছে৷ ফলে সরকার কিছুটা রাখঢাক করার চেষ্টা করলেও শেয়ারবাজার কেলেঙ্কারির আসল খবর হয়তো এবার জনসমক্ষে চলেই আসছে৷

র‌্যাবের ১২ সদস্যের বিরুদ্ধে লিমনের মা'র মামলা

হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে র‌্যাবের ১২ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ঝালকাঠির রাজাপুরের এইচএসসি পরীক্ষার্থী মোঃ লিমন হোসেনের মা হেনুয়ারা বেগম৷ আজকের প্রায় সব পত্রিকার প্রথম পাতায় স্থান পেয়েছে ব়্যাবের বিরুদ্ধে এই মামলার খবর৷ এতে আরো বলা হয়েছে, মামলায় র‌্যাবের ৬ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে৷ অজ্ঞাত হিসেবে রয়েছেন আরও ৬ জন৷ রবিবার ঝালকাঠির জ্যেষ্ঠ বিচারক হাকিম নুসরাত জাহানের আদালতে মামলাটি করা হয়৷ বিচারক অভিযোগ আমলে নিয়ে রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেনকে তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন৷ মামলায় লিমনকে পরিকল্পিতভাবে খুন, জখম এবং চিরতরে পঙ্গু করার অভিযোগ আনা হয়েছে৷ এদিকে লিমন হোসেনের ঘটনায় র‌্যাব তদন্ত করবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক হাসান মাহমুদ খন্দকার৷

আইভরি কোস্টে মৃত্যুঝুঁকিতে বাংলাদেশের পুলিশ সদস্যরা

আইভরি কোস্টের সংঘাতপূর্ণ শহর আবিদজানে দুই পক্ষের লড়াইয়ে ঝুঁকির মধ্যে পড়েছেন জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে কর্মরত বাংলাদেশ পুলিশের ১২০ সদস্য৷ শহরে মিছিল ও দাঙ্গা দমনের জন্য অস্থায়ীভাবে তাঁদের সেখানে নেওয়া হলেও বর্তমানে তাঁরা যুদ্ধের মধ্যে পড়েছেন৷ দৈনিক প্রথম আলো তুলে ধরেছে তাঁদের এই ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থার কথা৷ খবরে বলা হয়েছে, তাঁরা যে ক্যাম্পে আছেন, সেখানে হামলায় ইতিমধ্যে বাংলাদেশি এক চিকিৎসক গুলিবিদ্ধ হয়েছেন৷ আবিদজানে মোতায়েন বাংলাদেশি পুলিশ সদস্যরা জানান, আইভরি কোস্টের আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত প্রেসিডেন্ট আলাসান ওয়াতারা গলফ হোটেলে অবস্থান করছেন৷ বাংলাদেশি পুলিশ সদস্যরা ঐ হোটেলের নিরাপত্তায় রয়েছেন৷ কিন্তু লোরঁ বাগবোর অনুগত যোদ্ধারা দুই দিন ধরে ওই হোটেল লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে৷ এ অবস্থায় তাঁদেরকে দ্রুত নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন তাঁরা৷
গ্রন্থনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়