1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় আরো কঠোর হতে হবে'

প্রতিদিন সহিংস রাজনীতির বলি হচ্ছেন নিরীহ মানুষ৷ এ অবস্থার পরিবর্তন কে না চান বাংলাদেশে? এক ব্লগার মনে করেন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় সরকারের আরো কঠোর হওয়া উচিত৷

সামহয়্যার ইন ব্লগে দেশের চলমান অবস্থায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন রেজা ঘটক৷ পাশাপাশি এ অবস্থা থেকে উত্তরণের পথও দেখিয়েছেন তিনি৷ তিনি মনে করেন, ‘‘আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় সরকারকে আরো কঠোর হতে হবে৷'' বর্তমান অবস্থার বর্ণনা দিতে গিয়ে রেজা লিখেছেন, ‘‘সাধারণ মানুষের জীবনের নিরাপত্তা এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা করার জন্য সরকারের উচিত এখন একটি সমন্বিত কার্যক্রম অনতিবিলম্বে শুরু করা৷

যে মুহূর্তে একদিকে একাত্তরের মানবতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চলছে, পাশাপাশি আগামী দশম সাধারণ নির্বাচনের প্রস্তুতি চলছে, ঠিক সেই মুহূর্তে একাত্তরের পরাজিত শক্তি ঠিক একাত্তরের মতো সারা দেশে সাধারণ মানুষের উপর নিছক আন্দোলনের নামে হামলা করছে৷ দেশের প্রধান বিরোধীদলের ছত্রছায়ায় জামায়াত-শিবির প্রকাশ্যে এই নাশকতার খেলায় মেতে উঠেছে৷ সরকারের শেষ সময়ের এই ক্রান্তিলগ্নে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য সরকারের সমন্বিত কার্যক্রমের একটি অভাবও পরিলক্ষিত হচ্ছে৷ সেই সুযোগে আন্দোলনের নামে বিএনপি-জামায়াত জোট সারা দেশে সাধারণ মানুষের উপর হামলার পাশাপাশি রাষ্ট্রীয় সম্পত্তির ব্যাপক ক্ষতি করে যাচ্ছে৷''

Proteste gegen Wahl in Bangladesh

‘আইনকে প্রয়োগ করতে যতই শিথিল থাকবে সরকার, ততই অপশক্তি আরো শক্তিশালী হয়ে মরণ ছোবল দেবে’

রেজা ঘটকের মতে, ‘‘আগামী সাধারণ নির্বাচনে কে ক্ষমতায় আসে কোন দল ক্ষমতায় আসে, তার উপর নির্ভর করেই আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত সদস্যদের মধ্যে একটি গা ছাড়া ভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে৷ আন্দোলনরত অপশক্তিদের নাশকতা ঠেকাতে তাদের কঠোর হাতে কেমন একটা গড়িমসি ভাব বিরাজমান৷ অবস্থা এমন যদি আগামী নির্বাচনে বিএনপি ক্ষমতায় আসে তাহলে যেন চাকরিটা রক্ষা করা যায়৷ তাই কঠোর হতে গিয়ে কারো নজরে না পড়ার কৌশল নিয়েছে অনেক সদস্য৷

আগামী নির্বাচনে যে দলই সরকার গঠন করুক না কেন, বর্তমান সরকারের উচিত রাষ্ট্রের সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার দিকটি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনায় নেওয়া৷ সেজন্য সরকারকে এখনি একটি সমন্বিত কার্যক্রম শুরু করতে হবে৷''

এ লেখায় সরকার এবং বিরোধী দলকে একটি অনস্বীকার্য কথা মনে করিয়ে দিয়েছেন ব্লগার রেজা ঘটক, লিখেছেন,‘‘মনে রাখতে হবে সবার আগে দেশের সর্বস্তরের সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার উপরই একটি দেশের সবকিছু নির্ভর করে৷ সেজন্য এখনি সরকার আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত সকল বাহিনীর সঙ্গে মিটিং করে জরুরি ভিত্তিতে একটি সমন্বিত যৌথ কার্যক্রমের উদ্যোগ নেওয়া অত্যন্ত প্রয়োজন৷''

রেজা ঘটক দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করেন, ‘‘আইনকে প্রয়োগ করতে যতই শিথিল থাকবে সরকার, ততই অপশক্তি আরো শক্তিশালী হয়ে মরণ ছোবল দেবে৷ বাংলাদেশকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় একটি আধুনিক রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে হলে আইনকে সঠিকভাবে সময় মতোই প্রয়োগ করতে হবে৷ নইলে বাংলাদেশকে রক্ষা করাই বিপদজ্জনক হয়ে দাঁড়াবে৷''

সংকলন: আশীষ চক্রবর্ত্তী

সম্পাদনা: জাহিদুল হক

নির্বাচিত প্রতিবেদন