1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘আইন নয়, সরকারের ইচ্ছায় কাজ করে’ বাংলাদেশের পুলিশ

বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে হরতাল কোন নতুন বিষয় নয়৷ কিন্তু হরতাল হলেই তার আগের দিন যানবাহনে আগুন, ভাঙচুরের ঘটনা এখন সংস্কৃতিতে পরিনত হয়েছে৷ আর যেসব যানবাহনে আগুন দেয়া হয় তার অধিকাংশই সাধারণ মানুষের৷

সবগুলো ঘটনাতেই মামলা করা হয়৷ তদন্তও শুরু করে পুলিশ৷ কিন্তু সাধারণ মানুষের এসব মামলার তদন্ত যেন কোনভাবেই শেষ হয় না৷ দু'য়েকটি মামলার তদন্ত যাও শেষ হয় সেগুলো পুরোপুরি রাজনৈতিক কারণে৷ সরকারের প্রয়োজনে যে সব মামলার তদন্ত করা দরকার শুধুমাত্র সেগুলোরই চার্জশিট দেয় পুলিশ৷ আসলে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের যেসব মামলায় ‘আটকানো' দরকার সেগুলোরই তদন্ত করে পুলিশ৷

ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব ল'এর পরিচালক ড. শাহদীন মালিক ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমাদের দেশে ঐতিহাসিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে পুলিশ আইন অনুযায়ী নয়, সরকারের ইচ্ছা অনুযায়ী কাজ করে থাকে৷ অনেক সময় পুলিশ চাইলেও ভালো কিছু করতে পারে না৷ অনেক সময় পুলিশের ভালো কিছু করার ক্ষমতাও নেই৷ ফলে যা হওয়ার এখন তাই হচ্ছে৷ সাধারণ মানুষের মামলাগুলো আর তদন্ত করছে না৷ শুধুমাত্র সরকারের প্রয়োজনে যে মামলাগুলোর তদন্ত হওয়া দরকার সেগুলোই করছে৷''

সর্বশেষ গত মঙ্গল ও বুধবার সারাদেশে ৪৮ ঘণ্টা হরতাল পালন করেছে জামায়াতে ইসলামী৷ এই হরতাল শুরুর আগের দিন সোমবার সন্ধ্যায় যাত্রাবাড়ি এলাকায় শ্যামলী পরিবহন ও একটি মাইক্রোবাসে আগুন দেয়া হয়৷ ওই ঘটনায় থানায় মামলায়ও হয়েছে৷ এর আগেও প্রতিটি হরতালের আগের দিন একাধিক যানবাহনে আগুন দেয়া হয়েছে৷ ব্যক্তিমালিকানাধীন যানবাহন ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা মামলাও করেন৷ এছাড়া কিছু ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে৷ কিন্তু দিনের পর দিন মামলাগুলো মামলার মতো থাকে৷

ঢাকা মেট্টোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান এই বিষয়ে ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘মামলার যে তদন্ত হয় না- এমনটি ঠিক নয়৷ মামলা দায়েরের পরপরই পুলিশ তদন্ত শুরু করে৷ কোন মামলার তদন্ত দ্রুত শেষ হয় আর কোন মামলার তদন্তে একটু সময় লাগে৷ কিন্তু সব মামলারই তদন্ত করে পুলিশ৷''

পুলিশের সক্ষমতার ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘‘দেশে যত বড় ঘটনা ঘটেছে তার সবই কিন্তু এই পুলিশই তদন্ত করে উদ্ঘাটন করেছে৷ ফলে পুলিশের সক্ষমতা যে নেই তা বলার কোন সুযোগ নেই৷ আর পুলিশ রাজনৈতিকভাবে মামলার তদন্ত করে এমন ধারণা ঠিক নয়৷ পুলিশ আইন অনুযায়ী পরিচালিত হয়৷ আইনের মাধ্যমেই পুলিশের সব কার্যক্রম পরিচালিত হয়৷

ড. শাহদীন মালিক বলেন, ‘‘পুলিশ সঠিকভাবে কিছু করার ক্ষমতা রাখলেও দেশে যে অপসংস্কৃতি চালু রয়েছে, তার ফলে তাদের পক্ষে সরকারের সিদ্ধান্তের বাইরে কিছুই করার নেই৷''

তিনি বলেন, ‘‘সবচেয়ে ভয়াবহ হত্যাকাণ্ডের মামলারও ১০ ভাগের বেশি মামলা প্রমাণ করতে পারে না পুলিশ৷ আর রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের কারণে পুলিশের পক্ষে যেটুকু করা সম্ভব তারা সেটুকুও করে না৷''

ড. শাহদীন মালিকের মতে, ‘‘আমাদের এই সংস্কৃতির পরিবর্তন করতে হবে৷ যদিও বর্তমানে পুলিশের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য কিছু কিছু অত্যাধুনিক সরঞ্জাম আমদানি করা হচ্ছে৷ সবচেয়ে বড় কথা হল তাদের স্বাধীনভাবে কাজ করার সুযোগ দিতে হবে৷ তাহলেই একটা পরিবর্তন আসবে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন