1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আইএস সমর্থকদের রুখতে হিমশিম খাচ্ছে ইন্দোনেশিয়া

সদস্য দেশগুলো থেকে কেউ যাতে ইসলামিক স্টেটস (আইএস বা আইসিস)-এ যোগ দিতে না পারে সে ব্যবস্থা করতে মরিয়া জাতিসংঘ৷ অথচ ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়ার মতো দেশগুলোতে আইএস-এ যোগ দেয়ার প্রবণতা বাড়ছে৷

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার কয়েকটি দেশে আইএস-এর তৎপরতা সেসব দেশের সরকারের জন্য রীতিমতো বিপদসংকেত হয়ে উঠছে৷ ইন্দোনেশিয়ার ব্যবসায়ী চেপ হেরনাওায়ানকে কয়েক দিন আগে আটক করেছিল পুলিশ৷ কিন্তু জঙ্গি বা সন্ত্রাসী কার্যকলাপে জড়িত থাকার কোনো অভিযোগ না থাকায় ছেড়ে দিতে হয় তাঁকে৷ মুক্ত হয়ে হেরনাওায়ান নিজেই বলেছেন, আইএস-এর হয়ে যুদ্ধে অংশ নিতে ইন্দোনেশিয়া থেকে অনেকেই যাচ্ছেন সিরিয়ায়৷ সম্প্রতি বেশ বড় একটি দলকে নিজে পাঠিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন ৬৩ বছর বয়সি এই ব্যবসায়ী৷

হেরনাওায়ানের মতে, ইন্দোনেশিয়ার মানুষ স্বতঃস্ফুর্তভাবেই আইএস-এ যোগ দিচ্ছে৷ তিনি জানান, এ পর্যন্ত অন্তত ২০০ জন ইন্দোনেশীয় নাগরিক আইএস-এর হয়ে যুদ্ধে অংশ নিতে ইরাক ও সিরিয়ায় গিয়েছে৷ আইএস-এর সকল কর্মকাণ্ডের প্রতি প্রকাশ্যেই সমর্থন জানাচ্ছেন হেরনাওয়ান৷

এ বছরের শুরুর দিকে জাকার্তার প্রাণকেন্দ্রে আইএস সমর্থকদের এক সমাবেশে ভাষণ দিতে দেখা যায় হেরনাওয়ানকে৷ মঞ্চে তাঁর পাশেই ছিল বাহরুমসিয়াহ নামের এক ব্যক্তি৷ পরবর্তীতে সিরিয়ায় আইএস-এর হয়ে যুদ্ধরত ইন্দোনেশীয়দের নিয়ে প্রচারিত এক ভিডিও চিত্রে দেখা গেছে বাহরুমসিয়াহ৷

আইএস সমর্থকদের এমন প্রকাশ্য তৎপরতা রুখতে পারছে না ইন্দোনেশিয়া সরকার৷ এর কারণ জানাতে গিয়ে ইন্দোনেশিয়ার পুলিশের মুখপাত্র ব্রিডেডিয়ার জেনারেল বয় রালফি বলেন, ‘‘সন্ত্রাসমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ না থাকলে তো আমরা প্রচলিত আইনে তাদের গ্রেপ্তার করতে পারি না৷''

ইন্দোনেশিয়ার নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের আশঙ্কা, এখন যাঁরা আইএস-এর হয়ে যুদ্ধ করতে ইরাক বা সিরিয়ায় যাচ্ছেন, দেশে ফিরে তারা বড় বড় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে পারেন৷ অতীতে এমনটিই হয়েছে৷ তাঁরা জানান, আফগানিস্তানে যারা যুদ্ধ করতে গিয়েছিল ২০০২ সালে বালি বোমা হামলায় তারা অংশ নিয়েছে৷ সেই হামলায় ২০২ জন নিহত হয়েছিল৷

মালয়েশিয়া থেকেও আইএস-এ যোগ দিচ্ছেন অনেকে৷ সম্প্রতি জঙ্গি সন্দেহে ৩০ জন মালয়েশীয় নাগরিকের পাসপোর্ট জব্দ করা হয়৷ গত সেপ্টেম্বরে কুয়ালালামপুর বিমানবন্দর থেকে জঙ্গি সন্দেহে গ্রেপ্তার করা হয় তিনজনকে৷ মালয়েশিয়া থেকে তাঁরা তুরস্কে যাচ্ছিলেন৷ এক সামরিক কর্মকর্তা জানান, এ পর্যন্ত ২২ জন মালয়েশীয় নাগরিক সিরিয়ার যুদ্ধে অংশ নিচ্ছে বলে তাঁরা জানতে পেরেছেন৷

ইন্দোনেশিয়া থেকে আইএস-এর হয়ে যুদ্ধ করতে গিয়ে এ পর্যন্ত অন্তত চারজন নিহত হয়েছেন৷ ভিলদান মুখোল্লাদ তাদেরই একজন৷ এ বছরের শুরুতে বাগদাদের এক রেস্টুরেন্টে আত্মঘাতী বোমা হামলায় অংশ নিয়ে প্রাণ দেন তিনি৷

এসিবি/ডিজি (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়