1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আইএস যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ

ইরাকের উত্তরাঞ্চলে গণহত্যা, অপহরণ এবং সংখ্যালঘুদের নির্মূলের চেষ্টার অভিযোগে জঙ্গি দল ‘ইসলামিক স্টেট' বা আইএস-এর বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ এনেছে ‘অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল'৷

লন্ডনভিত্তিক এই মানবাধিকার সংস্থাটি বলেছে, জুন মাসে ইরাকের উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলে আইএস জঙ্গিরা ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর হামলা চালিয়েছে৷ মঙ্গলবার প্রকাশিত রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, আইএস যোদ্ধারা খ্রিষ্টান, শিয়া, ইয়াজিদি এবং অন্য সংখ্যালঘুদের তাঁদের বাড়িঘর থেকে উচ্ছেদ করেছে৷ এছাড়া প্রতিবেদনে এমন সব তথ্য প্রমাণ উঠে এসেছে, যাতে দেখা যাচ্ছে আইএস যোদ্ধারা ইয়াজিদিদের উপর গণহত্যা চালিয়েছে৷ এমনকি শিশুদেরও রেহাই দেয়নি৷

এছাড়া প্রতিবেদনে কয়েক ইয়াজিদি নারী ও শিশু অপহরণের তথ্য প্রমাণ রয়েছে৷ এতে বলা হয়েছে, অপহৃত অনেক নারী শিশুর ভাগ্যে কী ঘটেছে তা এখনও অজানা৷ সোমবারও ইরাকের রাজধানী বাগদাদে শিয়া অধ্যুষিত এলাকায় একটি গাড়ি বোমা হামলায় ১৮ জন নিহত ও অন্তত অর্ধশত মানুষ আহত হয়েছেন৷

সুলাইমান বেক জঙ্গি মুক্ত

রবিবার আমেরলিতে চালানো হামলায় আইএস-এর বিরুদ্ধে বড় ধরনের সাফল্যের মুখ দেখেছে ইরাকি নিরাপত্তারক্ষীরা৷ আমেরলির উত্তরে সুলাইমান বেক-এর নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে কুর্দি যোদ্ধারা৷ এটা এতদিন আইএস যোদ্ধাদের শক্ত ঘাঁটি ছিল৷ প্রায় ১১ সপ্তাহ ধরে শহরটি দখল করে রেখেছিল জিহাদিরা৷ ইরাকের যোগাযোগ মন্ত্রী সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই শহরের দখল নিয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী৷ সোমবার আমেরলি সফর করেন প্রধানমন্ত্রী নূরি আল-মালিকি৷

Irak Kampf gegen IS

মায়ের কাছ থেকে বিদায় নিয়ে যুদ্ধে যাচ্ছেন এক কুর্দি তরুণ

যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে তারা আমেরলিতে চার দফা বিমান হামলা চালিয়েছিল৷ তবে সেখান থেকে পালিয়ে আইএস যোদ্ধারা পার্শ্ববর্তী শহর ইয়াংকাজার দখল নেয়৷

নিহত ও গৃহহীন

সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় ইরাকের উত্তরাঞ্চলে আগস্ট মাসে অন্তত ১৪২০ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ৷ আহত হয়েছে অন্তত ১৩৭০ জন৷ আইএস যোদ্ধারা অন্তত ৬ লাখ মানুষকে জোর করে ঘর ছাড়া করেছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি৷ ইরাকে নিযুক্ত জাতিসংঘের প্রতিনিধি নিকোলাই ম্লাদেনভ সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ‘‘আইএস যোদ্ধারা এখনো সংখ্যালঘুদের উপর হামলা চালাচ্ছে এবং প্রতিদিনই হত্যাযজ্ঞ চলছে৷'' তিনি জানান, নিহতের সংখ্যা হয়ত আরো বেশি হতে পারে৷ এছাড়া ইরাকে সহিংসতায় জুলাইতে ১৭৩৭ জন এবং জুনে ২৪০০ সাধারণ মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ৷

ইয়াজিদিদের সহায়তা

ইরাকের উত্তরে সংখ্যালঘু ইয়াজিদি ও খ্রিষ্টানরা কট্টরপন্থি আইসিস জঙ্গিদের রোষের শিকার হচ্ছে৷ সরকারি বাহিনী ও কুর্দি বাহিনী তাদের মোকাবিলার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে৷ মার্কিন প্রশাসন সহ পশ্চিমা জগত, ইরান, সৌদি আরব সহ আরব জগত – সব পক্ষই এ বিষয়ে একমত যে, ইরাকের ক্ষমতাকেন্দ্রে পালাবদল ঘটলে বর্তমান সংকটের রাজনৈতিক সমাধানের পথ প্রশস্ত হতে পারে৷ সরকারে দেশের সব সম্প্রদায়ের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে পারলে আইসিস-এর মতো জঙ্গি গোষ্ঠী দুর্বল হয়ে পড়বে৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন