1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আইএস যেভাবে প্রতিদিন ১০ লাখ ডলার আয় করছে

কয়েক মাস ধরে বিমান হামলা চালানোর ফলে আইএস এর ভিত্তি দূর্বল হয়ে গেছে বলে মনে করা হলেও জঙ্গি গোষ্ঠীটি সিরীয় ভূখণ্ডের অর্ধেকেরও বেশি অংশের উপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছে বলে জানা গেছে৷

লন্ডনভিত্তিক ‘সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস' বা এসওএইচআর বলছে সিরিয়ার ৫০ শতাংশেরও বেশি অংশ এখন আইএস এর দখলে৷ সবশেষ তাঁরা সিরিয়া-ইরাক সীমান্তে থাকা সিরীয় প্রশাসনের শেষ ক্রসিং এর দখল করে নেয় বলে জানিয়েছে সংস্থাটি৷

এর আগে বৃহস্পতিবার আইএস ঐতিহাসিক স্থাপনায় ভরপুর পালমিরা শহরের উপর পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করে৷ ফলে সেখানে থাকা নিদর্শনগুলো ধ্বংস হওয়ার আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা৷

এদিকে, এসওএইচআর এর তথ্য অনুযায়ী আইএস সিরিয়ার অর্ধেকেরও বেশি অঞ্চল দখল করতে পারলেও এর বেশিরভাগ অংশই কৌশলগতভাবে ততটা গুরুত্বপূর্ণ নয় বলে মনে করছেন কেউ কেউ৷ তাঁদের একজন সিরিয়া ও ইরাকে জিহাদি মতবাদ নিয়ে গবেষণা করা চার্লি উইন্টার৷

তবে চার্লি উইন্টারের সঙ্গে একমত নন সার্জিও বিয়ানচি৷

এদিকে, আইএস এর এই সাম্প্রতিক সাফল্যের পরও মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা মনে করেন, যুক্তরাষ্ট্র ঐ জঙ্গি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে হেরে যাচ্ছে না৷

ওবামা হয়ত ঠিক বলছেন৷ কিন্তু আইএস এতদিন পর্যন্ত তাদের কার্যক্রম কীভাবে চালিয়ে যেতে পারছে তা জানতে অনেকেই আগ্রহী হতে পারেন৷ মার্কিন থিংক ট্যাংক ‘ব়্যান্ড করপোরেশন' (www.rand.org/) এর বিশ্লেষকদের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে নিউ ইয়র্ক টাইমস এ সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে৷

‘দ্য সিরিয়ান জিহাদ' বইয়ের লেখক চার্লস লিস্টার প্রতিবেদনটি টুইটারে শেয়ার করে লিখেছেন, চাঁদাবাজি আর করারোপ করে আইএস তেল বিক্রির চেয়ে ছয়গুন বেশি অর্থ আয় করছে!

ঐ প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, শুধু চাঁদাবাজি আর করারোপ থেকেই আইএস প্রতিদিন ১০ লাখ ডলারেরও বেশি অর্থ আয় করছে৷ এছাড়া মুক্তিপণ, তেল বিক্রি, এমনকি ব্যাংক থেকে চুরি করেও আইএস অর্থ আয় করছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে৷

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: আশীষ চক্রবর্ত্তী

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়