1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আইএস-এর সঙ্গে লড়তে ফ্রান্সের পাশে থাকবে জার্মানি

প্যারিস হামলার পর ইসলামিক স্টেট এর সঙ্গে যুদ্ধ ঘোষণা করেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রঁসোয়া ওলঁদ৷ এরপর থেকে তিনি বিশ্বনেতাদের সমর্থন পাওয়ার চেষ্টা করছেন৷ এক্ষেত্রে জার্মানি ফ্রান্সের সঙ্গে থাকার কথা জানিয়েছে৷

বুধবার প্যারিসের ‘প্লাস দ্য লা রেপুবলিক'-এ গোলাপি রংয়ের গোলাপ দিয়ে ১৩ নভেম্বরের হামলায় নিহতদের স্মরণ করেন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ওলঁদ৷

এরপর দুই নেতা বৈঠকে বসেন৷ সে সময় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘‘সিরিয়া ও ইরাকে দায়েশ (আইএস এর অন্য নাম)-এর বিরুদ্ধে লড়তে জার্মানি আরেকটু বেশি ভূমিকা রাখতে পারে৷'' জবাবে ম্যার্কেল জার্মানি কীভাবে এই ‘অতিরিক্ত দায়িত্ব' পালন করতে পারে সে ব্যাপারে ‘শিগগিরই' সিদ্ধান্ত নেয়ার অঙ্গীকার করেন৷ আইএস-এর সঙ্গে যুদ্ধে ফ্রান্সের পাশে থাকার অঙ্গীকার করে ম্যার্কেল বলেন, ‘‘আমরা সন্ত্রাসীদের চেয়ে শক্তিশালী হব৷''

এদিকে বুধবার জার্মানি জানিয়েছে, যে তারা পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালিতে সাড়ে ছয়শ সৈন্য পাঠাবে৷ এর ফলে ঐ দেশে ‘জিহাদি'দের সঙ্গে লড়াইরত ফরাসি সৈন্যদের দায়িত্ব একটু কম হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে৷

ভিডিও দেখুন 02:06

ম্যার্কেলের সঙ্গে বৈঠকের আগে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ওলঁদ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের সঙ্গে কথা বলেন৷ ক্যামেরনও ওলঁদকে সমর্থনের কথা জানান৷ ব্রিটেন ইতিমধ্যে সিরিয়ায় আইএস-এর বিরুদ্ধে আকাশ থেকে হামলা চালাচ্ছে৷ ক্যামেরন বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ সংসদে আইএস-এর বিরুদ্ধে লড়তে তার নতুন প্রস্তাবের কথা উত্থাপন করবেন৷ এরপর আগামী সপ্তাহে ব্রিটিশ সাংসদরা ক্যামেরনের প্রস্তাব নিয়ে ভোটে অংশ নেবেন৷

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা আইএস বিরুদ্ধে লড়তে ওলঁদকে রাশিয়াকে সঙ্গে নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন৷ বৃহস্পতিবার ওলঁদ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিনের সঙ্গে বৈঠক করবেন৷

জেডএইচ/এসবি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়