1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আইএস-এর বাংলাদেশ প্রধানের নাম ঘোষণা রমজানে!

রমজান মাসে ইসলামিক স্টেট-এর বাংলাদেশি নেতার নাম ঘোষণা করা হবে৷ যুদ্ধবিষয়ক মার্কিন গবেষণা প্রতিষ্ঠান স্টাডি অফ ওয়ারের প্রতিবেদনে এ দাবি করা হয়৷ এর আগে আবু ইব্রাহিম নামের একজনকে বাংলাদেশি ফ্রন্টের নেতা বলে জানানো হয়েছিল৷

স্টাডি অফ ওয়ার বা আইএসডাব্লিউ-র ঐ প্রতিবেদনে দাবি করা হয় , আগামী রমজান মাস, অর্থাৎ ৬ জুন থেকে ৫ জুলাইয়ের মধ্যেই ঘোষণা করা হবে ইসলামিক স্টেট অফ বাংলাদেশ বা আইএসবি প্রধানের নাম৷

বলা বাহুল্য, রমজান মাসকে সামনে রেখেই তথাকথিত ইসলামিক স্টেট বা আইএস তাদের নতুন প্রচারণা শুরু করতে যাচ্ছে৷ এই প্রচারণায় ঐতিহাসিকভাবে মুসলিম ভূখণ্ড উত্তর আফ্রিকা ওব দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ছাড়াও বাংলাদেশকে ‘টার্গেট' করা হয়েছে৷

ভিডিও দেখুন 42:31

এর আগে গত এপ্রিল মাসে ইসলামিক স্টেট-এর মুখপত্র বলে পরিচিত ‘দাবিক' ম্যাগাজিনের সর্বশেষ সংখ্যায় বাংলাদেশে আইএস-এর নতুন ‘ফ্রন্ট' খোলার কথা বলা হয়৷ জানানো হয়, বাংলাদেশে এ মুহূর্তে আইএস পরিচালনার দায়িত্বে আছেন আবু ইব্রাহিম নামের এক ব্যক্তি৷

তবে আগামী রমজানে আইএসবি-র নতুন নেতা হিসেবে তাঁর নামই ঘোষিত হবে কিনা, সে ব্যাপারে কিছু জানায়নি আইএসডাব্লিউ৷

গত সেপ্টেম্বর মাস থেকে বাংলাদেশে ধর্মনিরপেক্ষ লেখক, প্রকাশক ও ব্লগার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আইএস-এর দায় স্বীকারের খবর শোনা যাচ্ছে৷ তবে বাংলাদেশ সরকার দেশে আইএস-এক থাকা বা ইসলামিক স্টেটের অস্তিত্বের কথা অস্বীকার করে আসছে৷

অডিও শুনুন 04:53

‘‘বাংলাদেশে জঙ্গি তৎপরতার পিছনে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য আছে৷''

এ প্রসঙ্গে নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল আব্দুর রশীদ (অব.) ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘দু'টি দিক থেকে বিশ্লেষণ করলে বাংলাদেশে আইএস-এর উপিস্থিতির প্রমাণ মেলে না৷ প্রথমত, এখানে জঙ্গি আক্রমণের যে ধরন, তাতে গ্লোবাল জিহাদের উদ্দেশ্য প্রসারিত হয় না৷ দ্বিতীয়ত, সাংগঠনিক উপস্থিতি বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় যে, যারা ধরা পড়ে তাদের মধ্যে জামায়াতের ছাত্র সংগঠন শিবিররের সদস্য আছে৷ এর সঙ্গে আছে নতুন যুক্ত হওয়া জঙ্গিও৷ এর মানে হলো এই জঙ্গিরা দেশজ৷'' তিনি বলেন, ‘‘বাংলাদেশে জঙ্গি তৎপরতার পিছনে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য আছে৷''

তবে জেনারেল রশীদের কথায়, ‘‘আমাদের সতর্ক থাকতে হবে৷ কারণ জঙ্গিরা তাদের অবস্থান এবং কৌশল বদল করে৷ বাংলাদেশে আইএস আদর্শের অনুসারী থাকতে পারে৷ তবে তা দিয়ে তাদের উপস্থিতি প্রমাণ করা যায় না৷''

এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল শুক্রবার ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে বলেন, ‘‘আমরাও বাংলদেশে হন্যে হয়ে আইএস খুঁজছি৷ সবাই আইএস আইএস করছেন৷ কিন্তু আমরা আইএস জঙ্গিদের খুঁজে পাচ্ছি না৷''

তিনি আরো বলেন, ‘‘আপনারা নিশ্চিত থাকুন যে, বাংলাদেশে কোনো আইএস নাই৷ আমরা খুঁজে পেলে আপনাদের জানাবো৷''

বন্ধু, বাংলাদেশে কি আইএস সত্যিই আছে? আপনার কী মনে হয়? জানান মতামত, লিখুন নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়