1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আইএস-এর প্রকৃত চেহারাটা দেখাচ্ছেন এব্রাহিম বি

মুসলমানদের ওপর নির্যাতনের কথা শুনে আইএস-এর আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী হতে চেয়েছিলেন এব্রাহিম বি৷ ভুল ভাঙে সিরিয়ায় গিয়ে৷ মানুষ মারার চেয়ে কারাবরণ শ্রেয় – এমনটা মনে হওয়ায় জার্মানিতে ফিরে আইএস-এর স্বরূপ উন্মোচন করছেন তিনি৷

বিশ্বের বেশ কিছু দেশের মতো জার্মানির কতিপয় মুসলমানের মধ্যেও ইসলামিক স্টেট বা আইএস-এ যোগ দেয়ার প্রবণতা দেখা যায়৷ সরকারি তথ্য অনুযায়ী, ইসলামি জঙ্গি সংগঠন আইএস-এর ডাকে তথাকথিত জিহাদে যোগ দিতে জার্মানি থেকে অন্তত ৭০০ তরুণ সিরিয়া বা ইরাকে গিয়েছিলেন৷ অনেকের মতে সংখ্যাটা এর চেয়ে অনেক বেশি৷ মনস্তাত্ত্বিক এবং ইসলাম ধর্মের গবেষক আহমেদ মানসুর মনে করেন, সংখ্যাটা ২ হাজারের চেয়ে কম হবে না৷ ইতিমধ্যে অন্তত ৯০ জন জার্মান নাগরিক আইএস-এর হয়ে যুদ্ধ করতে গিয়ে প্রাণও দিয়েছেন৷

জার্মানির যেসব শহরের অধিবাসী আইএস-এ যোগ দিয়েছে ভল্ফসবুর্গ তাদের অন্যতম৷ অন্তত ২০ জন তরুণ এ শহর থেকে সিরিয়া বা ইরাকে গিয়েছেন বলে জানা গেছে৷ তাঁদেরই একজন এব্রাহিম বি৷

২০১৪ সালের মে মাসে ইয়াসি কোয়াসাইফি নামের এক লোকের প্ররোচনায় এব্রাহিম প্রথমে তুরস্ক, তারপর সেখান থেকে সিরিয়ার জারাবুলুস শহরের শরণার্থী শিবিরে যান৷ সেখানে পাসপোর্ট জমা দেয়ার পর আইএস-এর পক্ষ থেকে জানতে চাওয়া হয়, ‘‘কী হবে তুমি, যোদ্ধা, নাকি আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী?''

Syrien IS-Kämpfer

অন্তত ৯০ জন জার্মান নাগরিক আইএস-এর হয়ে যুদ্ধ করতে গিয়ে প্রাণও দিয়েছেন

জার্মানিতে থাকতেই ইয়াসি কোয়াসাইফি তাঁকে বলত, ‘‘মুসলমানরা না খেয়ে আছে, মুসলমান নারীদের ধর্ষণ করা হচ্ছে৷ এই পরিস্থিতিতে তুমি শান্তিতে ঘুমাবে কী করে?'' আইএস-এর প্রশ্নের জবাব দেয়ার সময় সেই কথা মনে পড়ে, এব্রাহিম আর কিছ না ভেবে জানান যে তিনি আত্মঘাতী বোমা হামলাকারীই হবেন৷

কিন্তু বললেই সবাই তা হতে পারে না৷ আইএস যা প্রচার করে আর বাস্তবে যা ঘটে তাতে যে আকাশ-পাতাল ব্যবধান তা অল্প কিছুদিনেই জেনে যান এব্রাহিম৷ জেনে যান, আইএস কাউকে বিশ্বাস করে না৷ সবার মতো তাঁকেও তাই শুরুতে ‘গোয়েন্দা' হিসেবে সন্দেহ করা হয়৷ শুরুতে তাঁকে এমন এক কামরায় আটকে রাখা হয় যেখানে মেঝেতে শুধু রক্ত আর রক্ত৷ শিরশ্ছেদ করা দেহ এনে ফেলা হতো সেই ঘরে৷

এব্রাহিম দেখেছেন, আইএস বলে বটে সিরিয়া বা ইরাকে গেলেই যুদ্ধে নেমে যাওয়া যাবে, কিন্তু সেই স্বপ্ন নিয়ে গিয়ে সেখানে অনেকেরই জুটেছে শুধু গাড়ি পরিষ্কার করার কাজ৷ অনেক তরুণী সেখানে গিয়েছেন বিলাসবহুল রোমাঞ্চকর জীবনের স্বপ্ন নিয়ে, গিয়ে হয়েছেন পতিতা৷ সুখ-স্বাচ্ছ্যন্দের স্বপ্ন খুব ভালো করে দেখাতে পারে আইএস, তবে সেই স্বপ্ন নিয়ে দেশ ছেড়ে স্বপ্নভঙ্গই হয় বেশির ভাগ তরুণের৷

এ সব দেখেই মন ভেঙে যায় এব্রাহিমের, মনে হয়, সিরিয়ায় মুক্ত জীবনের চেয়ে জার্মানিতে প্রয়োজনে চিরকালের জন্য কারাবরণও ভালো৷ ফিরে আসেন জার্মানিতে৷ সেই থেকে কারাবন্দি জার্মান এই মুসলিম তরুণ৷

Kindersoldaten Syrien IS

সুখ-স্বাচ্ছ্যন্দের স্বপ্ন দেখাতে পারে আইএস, তবে স্বপ্নভঙ্গই হয় বেশির ভাগ তরুণের

আদালতে উকিলদের প্রশ্নের জবাবে, আইএস সম্পর্কে খোলামেলা কথা বলছেন এব্রাহিম বি৷ আইএস এবং অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনে যোগদানে আগ্রহী হতে পারে এমন তরুণদের সচেতন করার কাজ করছে এমন সংগঠনগুলো মনে করে এব্রাহিম বি-র মতো আইএস ছেড়ে আসা তরুণদের অভিজ্ঞতা সবাইকে জানানো দরকার৷ লন্ডন কিংস কলেজের উগ্রবাদ বিষয়ক গবেষক পেটার নয়মানও ডয়চে ভেলেকে এ কথাই বললেন৷

এদিকে তুরস্কের বিমান হামলার কারণে আইএস-বিরোধী যুদ্ধের সমীকরণ জটিল রূপ নিয়েছে৷ তুরস্ক আইএস-কে সীমান্ত থেকে সরিয়ে দেয়ার উদ্দেশ্যের কথা বললেও আইএস-এর পাশাপাশি কুর্দি বিদ্রোহীদের ওপরও হামলা চালাচ্ছে৷ ইতিমধ্যে কু্র্দি বিদ্রোহীদের সংগঠন পিকেকে পাল্টা জবাব দিতে শুরু করেছে৷ পিকেকে-র হামলায় এ পর্যন্ত ৩ জন তুর্কি সেনাসদস্য নিহত এবং অন্তত ৩১জন আহত হয়েছে৷

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, তুরস্কের চলমান বিমান হামলার কারণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তুরস্ক যৌথভাবে আইএস-এর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার যে অঙ্গীকার করেছিল, তা নতুন এক জটিলতায় পড়েছে৷ ধারণা করা হচ্ছে, তুরস্ক আইএস-এর বিরুদ্ধে হামলা চালালেও দেশটি প্রধান প্রতিপক্ষ মনে করে কুর্দিদের৷ অন্যদিকে সিরিয়া সীমান্তে আইএস বিরোধী যুদ্ধে কুর্দিরাই এ মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি সফল৷ এ কারণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্রদের কাছে কুর্দিরা খুব গুরুত্বপূর্ণ৷ মার্কিন-তুর্কি চুক্তি এই পরস্পরবিরোধীতাকে জয় করে কীভাবে আইএস-বিরোধী লড়াইয়ে ঐক্যবদ্ধ থাকে এবং লাভবানও হয়, সেটাই এখন দেখার বিষয়৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়