1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আইএস-এর কাছে তেজস্ক্রিয় পদার্থ বিক্রির ইচ্ছা!

ভেবে দেখুন, এমনটা হলে তার পরিণতি কী হতে পারে? চলতি বছরে এমনই এক ইচ্ছা পোষণ করেছিলেন তেজস্ক্রিয় পদার্থের এক চোরাকারবারী৷ বার্তা সংস্থা এপি জানিয়েছে এ তথ্য

মার্কিন এই বার্তা সংস্থাটি এ বিষয়ে একটি তদন্তমূলক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে৷ এতে কয়েকটি বিষয় উঠে এসেছে:

রাশিয়ার সঙ্গে জড়িত অপরাধী চক্ররা সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মোলডাভিয়ায় মধ্যপ্রাচ্যের ক্রেতাদের কাছে তেজস্ক্রিয় পদার্থ বিক্রি করতে চেয়েছে৷

– চলতি বছরের শুরুতে একটি চক্র বিশেষ করে জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট-এর কাছে উচ্চমানের তেজস্কিয় পদার্থ সিজিয়াম বিক্রি করতে চেয়েছিল৷

সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের অংশ, বর্তমানে পূর্ব ইউরোপের দেশ মোলডোভিয়ার পুলিশ কর্তৃপক্ষ ও মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা গত পাঁচ বছরে এরকম অন্তত চারটি সম্ভাব্য চোরাচালানের ঘটনা আটকে দিয়েছে বলে জানিয়েছে এপি৷

এপি-র প্রতিবেদনের একটি অংশ উল্লেখ করে খবরটি শেয়ার করেছে ভারতীয় সংবাদসংস্থা ফার্স্টপোস্ট৷

ঘটনার সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্ক থাকা নিয়ে অনেক টুইটার ব্যবহারকারীর মধ্যে প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে৷ এদের মধ্য একজন নোয়া রথমান৷

রথমানের এই টুইটের নীচে মন্তব্য করেছেন মাইকেল ফ্রস্ট৷ তিনি মনে করছেন, মধ্যপ্রাচ্য সংকটে রাশিয়া জড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি ভালো হওয়ার চেয়ে খারাপ হবে৷

আর মাক্সওয়েল এইচ. হোয়াইট মনে করেন, চোরাকারবারীর সঙ্গে কোনো সাধারণ রাশিয়ান নাগরিক জড়িত থাকতে পারে না৷ কারণ, তেজস্ক্রিয় পদার্থ হস্তগত করার মতো কাজ সম্পাদন করতে অন্তত সরকারি পর্যায়ের কারও না কারও সহায়তা প্রয়োজন৷

তবে ইংগ্রিড মায়ার এপি-র এই প্রতিবেদনটি এফবিআই-এর পাতানো গল্প বলে মনে করছেন৷

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

আইএস-এর কাছে তেজস্ক্রিয় পদার্থ বিক্রির পরিনাম কী হতে পারে? লিখুন নীচের মন্তব্যের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন