1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

অ্যাডভেঞ্চারের স্বর্গ ‘এরিয়া ফর্টিসেভেন’

অস্ট্রিয়ার আল্পস পর্বতাঞ্চলের টিরোল এলাকা৷ সেখানে যদি একদল মানুষকে হঠাৎ উদ্ভট কাজকর্ম করতে দেখেন: দেয়াল-আরোহণ কিংবা মেগা-দোলনা থেকে ঝাঁপ খাওয়া – তাহলে বুঝবেন, এরিয়া ফর্টিসেভেন-এ এসে পড়েছেন৷

default

‘এরিয়া ফর্টিসেভেন’ এর অবস্থান অস্ট্রিয়ান আল্পসে

বিষুবরেখার উত্তরে ৪৭ অক্ষাংশে অবস্থান, তাই নাম এরিয়া ফর্টিসেভেন৷ আউটডোর অ্যাকটিভিটি, বা বাইরের খোলামেলায় দৌড়ঝাঁপ বলতে যা বোঝায়, তা করে যারা আনন্দ পান, তাদের জন্যই এই এরিয়া ফর্টিসেভেন৷ সাড়ে ছয় হেক্টর এলাকার পার্কটিতে যে পরিমাণ খেলাধুলার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে, সারা বিশ্বে তা তুলনাহীন৷ এরিয়া ফর্টিসেভেন-এর কর্মী ক্রিস্টিয়ান স্ন্যোলার বলেন, ‘‘এটা হল এমন একটা জায়গা, যেখানে পাহাড়ি অঞ্চলে করার মতো যাবতীয় ট্রেন্ডি স্পোর্টগুলি একসঙ্গে পাওয়া যাবে, সেগুলোকে ট্রাই করে দেখার সুযোগ পাওয়া যাবে৷ এই ধারণা থেকেই এরিয়া ফর্টিসেভেন-এর জন্ম৷ এটা এমন একটা জায়গা, যেখানে ধীরে-সুস্থে, তাড়াহুড়ো না করে যাবতীয় ট্রেন্ড স্পোর্টগুলো পরখ করে দেখা যায়৷''

ক্রিস্টিয়ান স্ন্যোলার হলেন পার্কটির মার্কেটিং-এর দায়িত্বে৷ তিনি নিজেই এক্সট্রিম অ্যাথলিট: ক্লাইম্বিং করেন, প্যারাশুট জাম্পিং করেন৷ মে থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে আড়াই লাখ অতিথি এখানে ভিড় করেন৷ তাদের অধিকাংশই পুরুষ ও বয়সে তরুণ৷ এখানে যারা আসেন, তারা জেনেশুনেই চলতি অ্যামিউজমেন্ট পার্কগুলোর কোনো বিকল্প খোঁজেন

ক্লাইম্বিং থেকে ব়্যাফটিং

এরিয়া ফর্টিসেভেন'-এর সাতাশ মিটার উচ্চতার ওপেন এয়ার ক্লাইম্বিং সাইট-টি হল ইউরোপে সর্বোচ্চ৷ গোটা ট্যুরটা সম্পূর্ণ করতে বেশ কয়েক ঘণ্টা সময় লাগে - এরিয়া ফর্টিসেভেন-এর অধিকাংশ স্পোর্টের ক্ষেত্রে যা প্রযোজ্য৷

যাটের দশক থেকে আল্পস অঞ্চলে সর্বাধিক জনপ্রিয় গ্রীষ্মকালীন গতিবিধিগুলির মধ্যে পড়ে ব়্যাফটিং৷ এরিয়া ফর্টিসেভেন আউটডোর পার্কে ইন এবং ওয়েটৎস নদী দু'টিতে নিয়মিত ব়্যাফটিং ট্যুর-এর ব্যবস্থা রাখা হয়৷

ওপেন এয়ার পার্কটিতে ক্রমেই আরো বেশি মানুষ ভিড় করছেন৷ সবাই চান অবসর সময়ে স্পোর্ট, সবাই চান এক্সট্রিম অ্যাথলিট হতে৷ সাইকেল চালানো আর পায়ে হেঁটে বেড়ানো হল সকলের প্রিয় – ছুটি কাটাতে কিংবা দিনের শেষে অফিস থেকে ফিরে৷ কানু জাতীয় ডিঙি চালনা আর ক্লাইম্বিংও ক্রমেই আরো বেশি জনপ্রিয় হচ্ছে৷

অ্যাড্রেনালিনঅ্যাকশন

মুক্ত বাতাসে খেলাধুলা বা অন্যান্য গতিবিধি আজ আধুনিক জীবনশৈলীর অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ পর্যটন ও অবসরবিনোদন বিশেষজ্ঞ রল্ফ ফ্রাইটাগ বলেন: ‘‘অ্যাকটিভ, মানে সক্রিয়ভাবে কিছু একটা করা আজ খুবই ইতিবাচক৷ আমি সক্রিয় মানেই আমি সুস্থ, আমার জীবন পরিপূর্ণ, আমি মডার্ন৷''

তবে মেগাসুইং বা মেগা-দোলনা থেকে ৩০ মিটার নীচে অ্যাসফাল্টের পার্কিং প্লেস-টির দিকে ঝাঁপ খেতে নিশ্চয় প্রচুর সাহস লাগে৷ অথচ ব্যাপারটা দেখতে যতোটা ঝুঁকিপূর্ণ, বাস্তবে তা নয়৷ ক্রিস্টিয়ান স্ন্যোলার বলেন, ‘‘সকলের চাই অ্যাড্রেনালিন, যতোটা সম্ভব অ্যাকশন৷ এটাই হল আমাদের আজকের সমাজ৷ কিন্তু সেই রোমাঞ্চ ঝুঁকি-শূন্য হতে হবে, তার বিমা থাকতে হবে৷ এই কম্প্রিহেনসিভ কভার ইনশিওরেন্সের মনোবৃত্তি আজ সর্বত্র৷''

গড়ে একজন অতিথি পার্কে তিন দিন কাটান৷ প্রতিটি আকর্ষণ – অর্থাৎ খেলার জন্য ৩০ থেকে ৫০ ইউরো মাশুল৷ তা সত্ত্বেও গ্রাহকরা খুশি বৈ অখুশি নন৷ যিনি সারাদিন অ্যাকটিভ অর্থাৎ সক্রিয় ছিলেন, তিনিও কিন্তু সন্ধ্যায় ঘরে ফিরে জিরিয়ে নেওয়ার কথা ভাবেন না৷ কেননা এরিয়া ফর্টিসেভেন-এ তখন শুরু হয়ে গেছে পার্টি টাইম!

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক