1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

অস্থায়ী নয়, স্থায়ী চাকরি চান সাহসী ঝরনা

রাজশাহীতে হরতালের সময় জামায়াত-শিবিরের কর্মীদের নির্মম হামলায় আহত পুলিশ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলমকে উদ্ধারে এগিয়ে এসে প্রশংসিত হয়েছিলেন ঝরনা বেগম৷ সরকার তাঁকে চাকরি দেয়ার আশ্বাস পূরণ না করায় আবারও তিনি আলোচনায়৷

ঐ ঘটনার পর সরকার ঝরনা বেগমকে চাকরি দেয়ার আশ্বাস দিয়েছিল৷ সেই আশায় রাজশাহী পুলিশ কর্তৃপক্ষ ও ঢাকায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বেশ কয়েকবার ধরনা দিয়েও এখনো চাকরি জোটেনি তাঁর৷ প্রথম আলো পত্রিকায় বুধবার এ সংক্রান্ত একটি খবর প্রকাশিত হওয়ার পর ঝরনাকে রাজশাহীর পুলিশ লাইনস স্কুলে পাঁচ হাজার টাকা বেতনে পাঁচ বছরের চুক্তিভিত্তিক চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়৷

কিন্তু ঝরনা জানিয়েছেন তিনি একটি স্থায়ী চাকরি চান৷ কেননা তাঁর আশঙ্কা অস্থায়ী চাকরি পেলে সরকার বদলের সাথে সাথে সেটা চলে যেতে পারে৷

কিন্তু অনলাইনে প্রথম আলোর এ সংক্রান্ত খবরের নীচে মন্তব্যের ঘরে এমএইচ রহমতউল্লাহ বাবু লিখেছেন, ‘‘পুলিশ কর্মকর্তাকে বাঁচাতে গিয়ে ঝরনা বেগম যে মাহাত্ম্য দেখিয়েছিলেন, চাকরি-টাকরি চাওয়াতে সেটা অনেকটাই ম্লান হয়েছে৷''

তবে সৈয়দ বিন ওবায়েদ মনে করিয়ে দেন যে, ‘‘চাকরি উনি চান নি, পুলিশ কর্মকর্তা আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছিলেন৷''

ঝরনা বেগম নিজেও প্রথম আলোকে বলেছেন, ‘‘চাকরি পাওয়ার জন্য সেদিন পুলিশ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলমকে উদ্ধার করতে যাইনি৷ মানবতার খাতিরে এবং বিবেকের তাগিদেই সাহায্য করতে এগিয়ে গিয়েছিলাম৷ এর জন্য আমি কোনো প্রতিদান চাইনি৷ কিন্তু ওই ঘটনার পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশ কর্মকর্তারা নিজ উদ্যোগে আমাকে সরকারি চাকরি দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন৷''

এদিকে, সামহয়্যার ইন ব্লগে ‘চলতি নিয়ম' নামধারী একজন প্রথম আলোর ঐ প্রতিবেদনটি ব্লগ পোস্টে তুলে দিয়ে জানতে চেয়েছেন, ‘‘সাহসী ঝরনার সঙ্গে এমন আচরণ কেন!'' তিনি বলেছেন, সরকারের ব্যাপারটাতে নজর দেয়া উচিত৷

এই পোস্টের নীচে আহলান লিখেছেন, ‘‘ঝর্ণা আপা....আপনাকে সালাম....স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কথায় আর ঘুরবেন না, নিজের মানসম্মান আর দয়া করে খোয়াবেন না, অকৃতজ্ঞ এই জাতি আপনাদেরকে কিছুই দিতে পারবে না৷''

ঝরনা বেগমকে নিয়ে এই ফলোআপ সংবাদ ছাপানোর জন্য প্রথম আলোর প্রশংসা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন জিনাত জোয়ার্দার রিপা৷ তবে পাশাপাশি তিনি ঐ আহত পুলিশ অফিসারকে নিয়ে কি কেউ ফলোআপ প্রতিবেদন করেছে কি না জানতে চেয়েছেন৷

এই স্ট্যাটাসের নীচে শওগাত আলী সাগর লিখেছেন, ‘‘ওই পুলিশ অফিসার অনেকের কাছেই গুরুত্বহীন যতোটা গুরুত্বপূর্ণ ঝরনার প্রতি অবহেলা৷''

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন