1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

অস্ত্রোপচার টেবিলেই প্রাণ হারালেন

আমরা ডয়চে ভেলের প্রেমে বিভোর হয়ে আছি৷ এশিয়ান গেমসে ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা৷ আফগানিস্তানের আশা এবং হৃদয় ভাঙলো বাংলাদেশ৷

default

চীনের গুয়াংগং আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এশিয়ান গেমসের চূড়ান্ত খেলায় শুক্রবার পুরুষদের ক্রিকেটে আফগানিস্তানকে ৫ উইকেটে হারিয়ে সোনা ছিনিয়ে নিল বাংলাদেশ৷ বাংলাদেশ-আফগানিস্তানের মধ্যে অনুষ্ঠিত খেলায় বাংলাদেশের সোনা জয়ের মধ্যে দিয়ে চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে গেল আফগানিস্তানের সোনা জয়ের স্বপ্ন৷ এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশের প্রথম সোনা জয়ের মধ্যে দিয়ে ইতিহাস গড়লো ক্রিকেটাররা৷ বাংলাদেশ দলের কঠিন মূহুর্তে শেষ দিকে দলের হাল ধরে দুই ব্যাটসম্যান নাইম ইসলাম ৩৪ ও সাব্বির রহমান ৩৩ রানের একটি অপরাজিত ঝোড়ো ইনিংস খেলে দলকে তথা বাংলাদেশকে এনে দিয়েছেন সোনার পদক৷ এতে আমরা আনন্দিত এবং গর্বিত৷ যেটি এবারের এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশের তৃতীয় পদক৷ এছাড়া মেয়েদের ক্রিকেটে রূপা এবং মহিলা কাবাডি দল ব্রোঞ্জ পদক জিতায় তাদেরকেও আমরা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি৷ ২০১১ সালে বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার পূর্বে এশিয়ান গেমসের এই স্বর্ণপদকটি আমাদের ক্রিকেটের জন্য একটি বড় অর্জন৷

ডয়চে ভেলের মাধ্যমে জানতে পারলাম সৌন্দর্য নিয়ে খুব বেশি উচ্চাকাঙ্খা ছিল চীনের পপ সংগিত শিল্লী ‘‘অ্যামেরিকান আইডল''-এর সাবেক প্রতিযোগী ২৪ বছর বয়স্ক ওয়াং বেই-এর৷ অত্যন্ত সুন্দরী হওয়া সত্ত্বেও, কসমেটিক সার্জারি করাতে গিয়ে শেষ পর্যন্ত প্লাস্টিক সার্জারির সময় অস্ত্রোপচার টেবিলেই প্রাণ হারালেন তিনি৷ ওয়াং বেই-এর এই অকাল মৃত্যুতে আমরা তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি৷ আরো জানতে পারলাম সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্যে চীনে প্রতি বছরে ৩০ লাখ মানুষ প্লাস্টিক সার্জারি করাতে যায়৷ আমরা আশা করবো ওয়াং-এর মৃত্যুর মধ্যে দিয়ে প্লাস্টিক সার্জারি করতে আগ্রহীরা এর বিপজ্জনক দিকটি খুব সহজেই অনুধাবন করতে পারবেন এবং সৃষ্টিকর্তার প্রদত্ত রূপ নিয়ে সন্তুষ্ট থাকবেন৷

হোয়াইট-নোজ সিনড্রোমের কারণে হারিয়ে যাচ্ছে বাদুড়৷ পরিবেশ দূষণের কারণে পৃথিবী থেকে বহু প্রাণীই নিশ্চিহ্ন হয়ে যাচ্ছে৷ সে রকম ছোট্ট এক প্রাণী বাদুড়৷ বলা হচ্ছে ইউরোপের দেশগুলোতে কমে আসছে বাদুড়ের সংখ্যা৷ তাদের সুরক্ষায় সচেতনতা গড়ে তুলতে অনুষ্ঠিত হয়েছে একাধিক সম্মেলন৷ আগামী বছরের ১৬ থেকে ১৮-ই সেপ্টেম্বর আরেকটি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে বাদুড় রক্ষায়৷ তার নামও ব্যাট কনফারেন্স৷ প্রাগ-এ অনুষ্ঠিত একটি সম্মেলনে বলা হয়েছে, বাদুড়ের বংশবৃদ্ধির জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে মানুষের বিভিন্ন কর্মকাণ্ড এবং বাদুড়ের শরীরে দেখা দেওয়া রহস্যজনক নতুন ধরনের এক ফাংগাস৷ এর নাম হোয়াইট-নোজ সিনড্রোম৷ ফাংগাসটি খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে৷ খুব কাছ থেকে বাদুড় দেখার সৌভাগ্য এখন খুব কম মানুষেরই হয়৷ শুধু আর বাদুড়ের কথা বলছি কেন? এখন তো আমাদের চোখে পাখিও সেই আগের মত আর পড়ে না৷ আর পাখির কিচির মিচির শোনার সৌভাগ্য বলতে গেলে হয়ই না৷ কিন্তু কেন? বাদুড় প্রচুর পোকামাকড় খেয়ে থাকে৷ বাদুড় প্রজাতি যদি প্রতি রাতে লাখ লাখ পোকামাকড় না খায় তাহলে আমাদেরকে পোকার হাত থেকে রক্ষা পেতে বাড়ি এবং মাঠেঘাটে রাসায়নিক দ্রব্য স্প্রে করতে হবে৷ ফলে পরিবেশ হবে দূষিত৷---- এই প্রতিবেদনটি শুনলাম ডয়চে ভেলের অনুষ্ঠানে এবং দেখলাম ও মনোযোগ দিয়ে পড়লাম ওয়েবসাইটে। প্রতিবেদনের নিখুঁত বিশ্লেষণ দেখে আমরা সত্যিই উদ্বিগ্ন৷ জলবায়ুর প্রভাবের কারণে যেভাবে আমাদের প্রকৃতি ও পরিবেশ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে চিরচেনা ও পরিবেশ বান্ধব জীবজন্তু ও উদ্ভিদ তাতে পৃথিবী ধংসের সেই দিন আর বেশি দূরে নেই৷ আমাদের অতি বিলাসিতা এবং খামখেয়ালিপনার কারণে যেভাবে প্রকৃতির ভারসাম্য নষ্ট হয়ে যাচ্ছে এর জন্য আমরা কোনমতেই নিজেদের দায় এড়াতে পারিনা৷ তাই আসুন আর নিজের তথা ব্যক্তি স্বার্থের জন্য আমরা পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হয় এমন কোন কাজ না করে বরং আমাদের পরিবেশ ও প্রকৃতিকে আরো সবুজ করে গড়ে তুলতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করি৷       

ইন্দোনেশিয়ার নানা ধরণের সমস্যার অন্যতম হল পরিবেশ দূষণ৷ আর এই দুষণের কারণে হুমকির মুখে জীববৈচিত্র্য৷ কিন্তু কেউ কি নেই তা দেখার? নিশ্চয়ই আছে৷ ইন্দোনেশিয়ার পরিবেশ সংরক্ষণে সবুজ বেতার- ছোট্ট একটা স্টেশন৷ এই প্রতিবেদনটিও আমাদের নজর কেড়েছে৷ সবুজ রেডিও-র পরিশ্রমী বন্ধুদের জন্য রইল শুভকামনা৷

বেদুইনরা উটের দুধকে গণ্য করে মহৌষধ হিসেবে৷ এশিয়া ও আফ্রিকায় মনে করা হয়, উটের দুধে রয়েছে রোগ নিরাময়ের চমৎকার ক্ষমতা৷ উটের দুধের পুষ্টিগুণের কারণে হাজার হাজার বছর ধরে আরবের বেদুইন এবং উত্তর আফ্রিকার লোকজন উট পালন করে আসছে৷ জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা অনেকদিন আগেই অন্য যেকোনো দুধের চেয়ে উটের দুধকে বেশি পুষ্টিকর হিসেবে অনুমোদন করেছে৷- এই প্রতিবেদনটি না পড়লে সত্যি জানতামই না যে উটের দুধে এত পুষ্টি রয়েছে৷ এই সুন্দর প্রতিবেদনের জন্য ধন্যবাদ৷    

পরিশেষে ডয়চে ভেলে প্রতিদিন সুন্দর সুন্দর এবং আকর্ষণীয় তথ্য উপহার দেওয়ার জন্য আমাদের ডয়চে ভেলে এফএম লিসেনার্স অ্যাসোসিয়েশন এবং সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাবের পক্ষ থেকে বাংলা বিভাগের সকল কর্মীকে আন্তরিক ধন্যবাদ এবং অভিনন্দন জানাচ্ছি৷ এভাবে আমাদের প্রতিদিন ডয়চে ভেলের প্রতি আরো আকৃষ্ট করে তুলবে এ প্রত্যাশা করছি৷ আমাদের প্রতিদিন ডয়চে ভেলের অনুষ্ঠান শোনা এবং একযুগে সকাল ১০টা থেকে মধ্য রাত ২টা পর্যন্ত ডয়চে ভেলের ওয়েবসাইটে ঘুরাঘুরি করা সার্থক হয়ে উঠেছে এবং আমরা ডয়চে ভেলের প্রেমে বিভোর হয়ে আছি৷    

 শুভেচ্ছাসহ, দিদারুল ইকবাল, তাছলিমা আক্তার লিমা, শহিদুল কায়সার লিমন, আনোয়ারা বেগম, তাছলিমা বেগম, শাহাদাত হোসেন, মুছলিমা বেগম, আব্দুর রাজ্জাক, জোবেদা রিনা,উম্মে সালমা মাছুমা, লিয়াকত আলী, হাজেরা বেগম, রফিকুল ইসলাম, আয়েশা বেগম, শাওন খান, আসিফুল ইসলাম রাতুল , মিরপুর, ঢাকা, বাংলাদেশ৷   

রাতের অনুষ্ঠান তেমন ভালো শুনতে পাচ্ছিনা৷ তারপরও অন্যএক ভালবাসার অনুভূতিতে শোনার চেষ্টা করছি৷এছাড়া মাঝে মধ্যে বাংলা বিভাগের ওয়েবপেজে চোখ বুলিয়ে নেই৷ ভাল থাকবেন৷ সেতুবন্ধ ডিএক্সিং ক্লাবের পক্ষে শেখ জিয়াউর রহমান, খড়িতলা,কালিগঞ্জ সাতক্ষীরা, বাংলাদেশ৷

বন্ধুরা,২৯শে নভেম্বর সকালে বাংলাদেশের একগুচ্ছ তাজা খবর, মালয়েশিয়ায় নব দম্পতিদের যৌন শিক্ষার ওপর রিপোর্ট এবং ক্যাম্পাসে জার্মানির হুমবোল্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা আর বিজ্ঞান ডটকমে এভারেস্ট বিজয়ী মুসা ইব্রাহিমের শিক্ষা ওয়েব সাইট চালু প্রসঙ্গে প্রতিবেদন শুনে আমরা ক্লাবের সবাই খুব খুশি হয়েছি৷ আজ সকালে ১০৫ মেগাহার্তস-এ শ্রবণমান ছিল খুব খারাপ!এর পরেও আমরা খুব কষ্ট করে রিপোর্ট ও প্রতিবেদনগুলো শুনেছি৷এতে প্রমাণিত হবে যে আমরা আপনাদের সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানকে কত ভালবাসি! যা হোক আপনারা এ ব্যাপারে কারিগরী বিভাগে একটু নাড়া দিবেন কেমন৷ মোখলেসুর রহমান, কুষ্টিয়া, বাংলাদেশ৷

আমি আপনাদের অনুষ্ঠান নিয়মিত শুনি৷ আমি ইনবক্স এর সময় বাড়ানোর অনুরোধ করছি কারণ এই সামান্য সময়ে শ্রোতাদের প্রশ্নের ঠিকঠাক উত্তর পাওয়া যায়না৷ আমি এবার মাধ্যমিক পরীক্ষা দেব৷ আগামী ৬ ডিসেম্বর আমার ১৬ তম জন্মদিন৷ সবাই ভাল থাকবেন,মীর রাসেল, রাজশাহী,বাংলাদেশ৷

আমার সালাম নিবেন৷ আশাকরি আপনারা আল্লাহর অশেষ রহমতে ভাল আছেন৷ সংবাদ পড়ার স্টাইলে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে অনুষ্ঠান৷ তাই বিশ্বসংবাদ ১৫মিনিট করার অনুরোধ জানাই৷ শাহ মোঃ ফেরদৌস হাসান নাজমুল,গাইবান্ধা, বাংলাদেশ৷

ওয়েবসাইটে দেয়া বেশ কয়েকটি প্রতিবেদন দেখলাম৷ সংস্কৃতি বিনোদন এবং সমাজ জীবন পাতায় ব্রিটেনের উইলিয়াম-কেট প্রেমকাহিনী বিষয়ে দুটি প্রতিবেদনই ভাল লাগলো৷ তবে সবচেয়ে ভাল লাগল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির পাতায় ২০১১সালে প্রকৃতির সবুজ রাজধানী হামবুর্গ সম্পর্কে জানতে পেরে৷ তথ্যবহুল দীর্ঘ এ প্রতিবেদনটি সত্যিই চমৎকার৷ হামবুর্গ ইউরোপের সেরা পরিবেশ বান্ধব রাজধানী নির্বাচিত হওয়ায় ডয়চে ভেলে মারফত জার্মান চ্যান্সেলর এবং ঐ দেশের জনগণকে জানাই আমার ক্লাবের পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন৷

শর্টওয়েভ চলমান থাকা অবস্থায় আগে মাঝে মধ্যে মিডিয়াম ওয়েভেও অনুষ্ঠান ভালই শুনতাম৷ আর এখন? আজ শর্টওয়েভ বন্ধ হবার একমাস পূর্ণ হলো ৷ এর মধ্যে কমপক্ষে ২৫ দিনই রাতে নেশার ঘোরে ডয়চে ভেলেকে খুঁজেছি৷ পেয়েছি মাত্র তিন দিন৷ দুর্বল রিসেপশনের কারণে শুনতে পেরেছি গড়ে মাত্র১০/১২ মিনিট ৷ বেশ কদিন থেকে মতামত না জানিয়ে নীরবে শুধু ওয়েবের পাতাই নাড়াচাড়া করছি ৷ তবে রাত সাড়ে ন’টা হলে যত কষ্টই লাগুক, খুঁজে পাওয়া না গেলেও পুরনো অভ্যাস ছাড়তে পারছি না ৷ এখন ভাবছি অভিমান করে আর লাভ কী ? দুধের স্বাদ ঘোলেই যখন মিটাতে হবে তখন অগত্যা ওয়েবসাইট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকি৷ কিন্তু ডয়চে ভেলের রেডিও অনুষ্ঠানের স্মৃতি মন থেকে যে কিছুতেই মুছে ফেলতে পারছিনা ৷ সবাই ভাল থাকুন, এই শুভ প্রত্যাশায় আব্দুল কুদ্দুস মাস্টার, ভুরুঙ্গামারী, কুড়িগ্রাম, বাংলাদেশ৷

আশাকরি সবাই ভালো আছেন৷ আমরা ভালো নেই, ডয়চে ভেলে আমাদের গলায় দড়ি পরানোর বন্দোবস্ত করেছে৷ ৩৫ বছরে এই প্রথম ডয়চে ভেলের বাংলা অনুষ্ঠান শর্টওয়েভে শোনা বন্ধ হয়ে গেলো৷ আমরা মর্মাহত, পারলে একটা শোকদিবস বা অন্তত এক মিনিট নিরবতা পালন করা যায়৷ বাংলাদেশ ছাড়াও যে লক্ষ লক্ষ বাঙালি নন টেকনিক্যাল স্বল্পশিক্ষিত শ্রোতারা দক্ষিণ এশিয়া জুড়ে৷ তাঁদের কাছে আপনাদের উত্তর কি ইন্টারনেট, পডকাষ্ট, টুইটার ইত্যাদি৷ ডয়চে ভেলের এই সিদ্ধান্তকে ধিক্কার জানাই৷ আমরা লজ্জিত, দুঃখিত, ছিঃ!!!! মানস তালুকদার, গীতাঞ্জলী পার্ক, কলকাতা, ভারত৷

ভাগ্য আমাদের আপনাদের কাছ থেকে দূরে ঠেলে দিচ্ছে৷ মায়ের অসুখের জন্য দীর্ঘদিন প্রিয় ডয়চে ভেলেকে সঙ্গ দিতে পারি নাই৷ এখন সময় ও সুযোগ হলেও অনুষ্ঠান শুনতে পারিনা বলে কোন প্রতিক্রিয়াও জানাতে পারছিনা৷ এর থেকে দুর্ভাগ্য কোন শ্রোতার জীবনে কখনো এসেছে কিনা জানিনা৷ তবুও ডয়চেভেলেকে চিরদিন আমাদের স্মরণে ও মননে রাখবো৷ ডাঃবিকাশ রঞ্জন, মায়া রাণী ঘোষ, কপিলমুনি, খুলনা, বাংলাদেশ৷