1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন জাপান

অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে রেকর্ড চতুর্থবারের মত এশিয়ান কাপ জয় করলো জাপান৷ শনিবার রাতে আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠা ফাইনাল ম্যাচে একমাত্র গোলটি হয় অতিরিক্ত সময়ে৷ আর ম্যাচের হিরো জাপানের ২৫ বছর বয়সি তাদানারি লি৷

default

গোলের পর উল্লসিত লি, হতাশ অস্ট্রেলিয়া

বল পোস্টে লেগে ফেরত আসা, পেনাল্টি মিস আর গোল বাতিল সব মিলিয়ে অসিদের জন্য শনিবার রাতটি ছিল যেন একেবারেই অপয়া৷ গোটা টুর্নামেন্টে মাত্র একটি গোলই পোস্টে ঢুকতে দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার ৩৮ বছর বয়সি গোলরক্ষক মার্ক শোয়ার্জার৷ কিন্তু ফাইনালে আর দলকে জেতাতে পারলেন না তিনি৷ তা সত্ত্বেও ফাইনাল ম্যাচটি হয়েছে দারুণ উপভোগ্য৷ সকারু আর নীল সামুরাই দুই পক্ষই শুরু থেকে আক্রমণ পাল্টা আক্রমণের মধ্য দিয়ে ম্যাচে নিজেদের প্রাধান্য বিস্তারের চেষ্টা চালায়৷ তবে ফেভারিট ছিল অস্ট্রেলিয়াই৷ বেশ কিছু জোরালো আক্রমণও তারা করে জাপানের গোলসীমায়৷ কিন্তু তাদের সামনে পাহাড় হয়ে দাঁড়ান জাপানি গোলরক্ষক ইজি কাওয়াশিমা৷ একের পর এক আক্রমণ তিনি ব্যর্থ করে দিয়েছেন দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখিয়ে৷

Flash-Galerie AFC Asian Cup

লি-র দুর্দান্ত ভলি ঢুকে যাচ্ছে জালে

খেলার শুরুর ১৫ মিনিটেই অসি দলের ব্রেট হোলম্যান চমৎকার একটি ক্রস করেন৷ কিন্তু গোলপোস্টে সামনে তাতে পা লাগাতে পারেননি কার্ল ভ্যালেরি৷ একটু পর স্ট্রাইকার টিম কাহিলের দুর্দান্ত হেড একহাতে সেভ করেন কাওয়াশিমা৷ বিরতির পর জাপানের সীমানায় আরও ধারালো আক্রমণ শুরু করে সকারুরা৷ ৪৯ মিনিটের মাথায় লুক উইল্কশায়ার নিশ্চিত গোল থেকে বঞ্চিত হন তার শট পোস্টে লাগায়৷ এরপর একটি গোল বাতিল করে দেন রেফারি৷ অবশ্য রিপ্লেতে দেখা যায় বলটি গোল লাইনের বাইরেই ছিল৷ অন্যদিকে জাপানের শিনজি ওকাজাকির একটি দারুণ হেডার একটুর জন্য অস্ট্রেলিয়ার পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়৷ তবে ম্যাচের সেরা সুযোগটি আসে ৭১ মিনিটের মাথায় যখন অস্ট্রেলিয়া পেনাল্টি পায়৷ কিন্তু হ্যারি কেওয়েলের নেওয়া শটটি ঠেকিয়ে দেন কাওয়শিমা৷ এরপর ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে৷

অতিরিক্ত সময়ের প্রথমার্ধেও গোল হয়নি৷ তবে ১৯ মিনিটের মাথায় জয়সূচক গোলটি পায় নীল সামুরাইরা৷ অস্ট্রেলিয়ার সীমানার কাছে বাম প্রান্তে বল পেয়ে যান ডেঞ্জারম্যান ইউতো নাগামোতো৷ সেখান থেকে গোলপোস্টের সামনে ক্রস করেন ফাঁকায় দাড়ানো তাদামারি লির দিকে৷ মুহূর্তেই বাম পায়ে যে দুর্দান্ত ভলিতে লি বলটি পোস্টে ঢুকিয়ে দেন তা তাকিয়ে তাকিয়ে দেখা ছাড়া আর কিছু করার ছিল না গোলরক্ষক মার্ক শোয়ার্জারের৷ ফলে প্রথমবারের মত এশিয়া কাপ জয়ের আশা ভেঙ্গে যায় অসিদের৷ আর সৌদি আরব ও ইরানকে পেছনে ফেলে রেকর্ড চতুর্থবারের মত এশিয়া সেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করে জাপান৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়