1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

অস্কার পুরস্কার ২০১০

৭ মার্চ আলো ঝলমলে এক অনুষ্ঠানে অ্যামেরিকার লসএঞ্জেলেসে হয়ে গেল ৮২তম আন্তর্জাতিক একাডেমি অ্যাওয়ার্ড পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান ‘অস্কার’৷ প্রতি বছরের মত এবছরও অস্কারে ছিল সেরা ছায়াছবি, পরিচালক, অভিনেতা ও অভিনেত্রীর পুরস্কার৷

default

পরিচালক ক্যাথরিন বিগেলো’র সঙ্গে স্টিভ মার্টিন এবং অ্যালেক বাল্ডউইন

অস্কার'এর যাত্রা শুরু হয় ১৯২৯ সালের ১৬ই মে ছোটখাট এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে৷ আজ এটি বিশ্বের সবচেয়ে খ্যাতনামা চলচ্চিত্র পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে পরিণত হয়েছে৷ প্রতি বছরের মত এবছরও চলচ্চিত্র জগতের ২৪টি বিভাগে সেরা কাজের জন্য দেয়া হল এই পুরস্কার৷ এর মধ্যে রয়েছে ১০টি প্রধান বিভাগ৷

বিশাল কোড্যাক থিয়েটার হলে জমজমাট এক পরিবেশে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন আমন্ত্রিত অতিথি, মনোনীত অভিনেতা অভিনেত্রী ও চলচ্চিত্রনির্মাতারা৷ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন হলিউডের দুই কমেডি শিল্পী স্টিভ মার্টিন এবং অ্যালেক বাল্ডউইন৷ হাসি ঠাট্টায় তাঁরা জমিয়ে রেখেছিলেন পুরো অনুষ্ঠাটি৷

মোট ৯টি বিভাগে মনোনয়ন পেয়ে এগিয়ে ছিল টাইটানিকখ্যাত পরিচালক জেমস ক্যামেরুনের এপিকধর্মী সাইন্সফিকশন ছবি ‘অবতার'৷ বাস্তব ও কল্প কাহিনির সংমিশ্রণে নির্মিত আভাতার মুক্তি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভেঙেছে বক্স অফিস৷ যা নির্মাণ করতে খরচ হয়েছে বিশাল অঙ্কের অর্থ৷ কিন্তু, সবাইকে অবাক করে দিয়ে ক্যামেরুনের প্রাক্তন স্ত্রী ক্যাথরিন বিগেলো'র ছবি ‘দ্য হার্ট লকার' জিতে নিল শ্রেষ্ঠ ছায়াছবি ও পরিচালকের অস্কারটি৷

Oscarverleihung 2010 Galerie Kathryn Bigelow Presse Backstage

সাংবাদিকদের মুখোমুখি ক্যাথরিন বিগেলো

মনোনয়নের দিক দিয়ে ‘অবতার'-এর পরেই স্থান ছিল এই ছবির৷ ইরাকে কর্মরত মার্কিন বম্ব স্কোয়াডের তিন কর্মীকে নিয়ে বাস্তব অভিজ্ঞতার আলোকে রচিত এই ছবির কাহিনি৷ এই ছবিটি তৈরি করতে অবতার'এর মত অত মোটা অঙ্কের অর্থ ব্যয় হয়নি৷ খরচ হয়েছে মাত্র ১৫ মিলিয়ন ডলার৷ বড় রকমের কোনো তারকা শিল্পী নেই ছবিতে৷ বক্স অফিসেও খুব একটা সাড়া জাগায়নি৷ কিন্তু এই ছবির মানবিক আবেদন হৃদয় স্পর্শ করে৷

উল্লেখ্য, অস্কার পুরস্কারের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো নারী পরিচালক শ্রেষ্ঠ চিত্রনির্মাতার পুরস্কারটি জয় করে নিলেন৷ সব মিলিয়ে ৬টি অস্কার পেয়েছে ‘দ্য হার্ট লকার'৷ অস্কার পেয়ে পরিচালক ক্যাথরিন বিগেলো উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, ‘‘এটা সত্যি, আমি অন্য কিছু বলতে পারছিনা৷ এটা আমার জীবনের সেরা মুহূর্ত৷ আমি এই পুরস্কার সেই সব সেনাদের উদ্দেশেই উৎসর্গ করব, যারা প্রতিদিন আফগানিস্তান, ইরাক এবং সারা বিশ্বে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন৷''

সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতে নেন জেফ ব্রিজেস ‘ক্রেজি হার্ট' ছবিতে অভিনয়ের জন্য৷ জীবনযুদ্ধে বিধ্বস্ত মদাসক্ত এক কান্ট্রি সিংগারের চরিত্রে রূপ দিয়ে দর্শকদের মন জয় করেছেন তিনি৷ ছবির গান গেয়েছেন নিজে৷ বাজিয়েছেন গিটারও৷ ৭০টিরও বেশি ছায়াছবিতে অভিনয় করেছেন বহুমুখী প্রতিভাধর এই শিল্পী৷ অস্কার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন কয়েকবার৷ এই বার তাঁর শ্রম সার্থক হল৷

Oscarverleihung 2010 Galerie Bühne Cameron Diaz und Steve Carell

ক্যামেরন ডায়াজ এবং স্টিভ ক্যারেল

সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কারটি জয় করে নিয়েছেন স্যান্ড্রা বুলক ‘দ্য ব্লাইন্ড সাইড' ছবিতে অভিনয়ের জন্য৷ মার্কিন ফুটবল তারকা মাইকেল ওহরের জীবন কাহিনি নিয়ে রচিত বক্স অফিস হিট করা এই ছবিটিতে স্যান্ড্রা সাধারণ এক অ্যামেরিকান গৃহিনীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন৷ অবহেলিত এক তরুণ কৃষ্ণাঙ্গ ফুটবল খেলোয়াড়কে দত্তক নিয়ে ফুটবল খেলায় তার প্রতিভা বিকশিত করতে সাহায্য করেন এই গৃহবধু৷ যে চরিত্রটি অনবদ্যভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন স্যান্ড্রা বুলক৷

শ্রেষ্ঠ বিদেশি ছবি হিসাবে জার্মানি-অস্ট্রিয়ার যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ছবি ‘দ্য হোয়াইট রিবন'-এর অস্কার জেতার সম্ভবনা থাকলেও বিফল হতে হয়েছে৷ সেরা অ-ইংরেজিভাষী ছায়াছবির অস্কারটি জিতে নিয়েছে আর্জেন্টিনার পরিচালক হুয়ান হোসে কামপানেলার ক্রাইম ড্রামা ‘দ্য সিক্রেট ইন দেয়ার আইস' ছবিটি৷

এছাড়া, শ্রেষ্ঠ সহঅভিনেতার অস্কারটি জিতে নিয়েছেন অস্ট্রিয়ান অভিনেতা ক্রিস্টফ ওয়ালজ৷ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পটভূমিকায় নির্মিত ‘দ্য ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ড' ছবিতে এক নাৎসি অফিসারের চরিত্রে অসাধারণ অভিনয়ের জন্য তিনি এই পুরস্কার পেয়েছেন৷ আর মার্কিন কৃষ্ণাঙ্গ অভিনেত্রী মো‘নিক ‘প্রেসিয়াস' ছবিতে অভিনয়ের জন্য পেয়েছেন শ্রেষ্ঠ সহঅভিনেত্রীর অস্কার৷

প্রতিবেদন : রায়হানা বেগম

সম্পাদনা : দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়