1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

অসি ক্রিকেটের মান খোয়ালো পন্টিং এর দল

ইংল্যান্ডের কাছে প্রথম ইনিংসে মাত্র ৯৮ রানে অল আউট হওয়ার পর ক্ষোভে ফুঁসছে অস্ট্রেলিয়ার সমর্থকরা৷ সোমবার অস্ট্রেলিয়ার পত্রিকাগুলোর শিরোনাম থেকেই তা বোঝা গেল৷

Australia, captain, Ricky Ponting, play, Ashes, cricket test, Australia, অসি, ক্রিকেট, মান, পন্টিং, রিকি, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া,

রিকি পন্টিং

‘শতাব্দীর সবচেয়ে বড় অপমান‘, ‘পন্টিং এর দল অপমানিত‘, ‘শত বছরের সবচেয়ে বাজে ক্রিকেট', এই হলো সোমবারের পত্রিকাগুলোর খেলার পাতার শিরোনাম৷ রোববার বক্সিং ডেতে অ্যাশেজ সিরিজের চতুর্থ টেস্টের প্রথম দিনে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে উপস্থিত ছিলেন ৮৪ হাজার দর্শক৷ আর তাদের সামনেই এভাবে মান খুইয়ে বসেছে রিকি পন্টিং এর দল৷ একে তো ৮৪ রানে অলআউট, তার ওপর দিন শেষে ইংলিশদের সংগ্রহ কোন উইকেট না হারিয়ে ১৫৭ রান৷ দুই ওপেনার কুক ৮০ ও স্ট্রস ৬৪ রান নিয়ে ক্রিজে রয়েছেন, ফলে ম্যাচের প্রথম দিনেই লাগাম পুরোপুরি ইংল্যান্ডের হাতে৷

অসি দলের এই পারফরমেন্সে ক্ষুব্ধ তাদের সমর্থকরা৷ এক্ষেত্রে সিডনি মর্নিং হেরাল্ড পত্রিকার পাতাটি আজ দেখার মতো৷ ভিক্টোরিয়ান আমলের আদলে তারা একটি শোকবার্তা ছেপেছে৷ তাতে লেখা, ‘‘অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটকে বিনম্রভাবে স্মরণ করা হচ্ছে যার মৃত্যু হয়েছে ২৬ ডিসেম্বর ২০১০ সালে, মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে৷'' রোববারের ইনিংস নিয়ে বিশিষ্ট ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ পিটার রোয়েবুক লিখেছেন, ‘‘পন্টিং এর দলকে দেখে মনে হচ্ছিল যেন কসাইয়ের হাতে ভেড়ার পাল৷'' যাই হোক, ম্যাচের আরও চারদিন বাকি, দেখা যাক এর মধ্যে পন্টিং এর দল ঘুরে দাঁড়াতে পারে কিনা৷

এদিকে ভারতের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনেই বেশ সুবিধাজনক অবস্থানে চলে গেছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা৷ ডারবানের সবুজ পিচে প্রথম দিন শেষে ভারতের সংগ্রহ ছয় উইকেটে ১৮৩ রান৷ দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার ডেল স্টেইনের চমৎকার বোলিং এর কারণে তেমন একটা সুবিধা করতে পারেনি ধোনির দল৷ বিশেষ করে তাঁর বোলিং এর লাইন লেন্থ ব্যাটসম্যানদের বেশ সমস্যায় ফেলে দিচ্ছিল৷ মাত্র ৩৬ রান দিয়ে চারটি উইকেট নিয়েছেন স্টেইন৷ ক্রিজে রয়েছেন অধিনায়ক ধোনি ২০ রান নিয়ে৷ সঙ্গে হরভজন সিং, তাঁর সংগ্রহ ১৫ রান৷ উল্লেখ্য, প্রথম ম্যাচ জিতে তিন টেস্টের সিরিজে ইতিমধ্যে এগিয়ে আছে স্বাগতিক প্রোটিয়াসরা৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক