1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

অসম অধিকারের জন্য লড়ছে সৌদি আরবের নারীরা

বিশ্বের সবদেশের নারীরা সমান অধিকারের জন্য যেখানে লড়াই করে চলছে, সেখানে ব্যতিক্রম কেবল সৌদি আরবের নারীরা৷ সেখানকার কিছু নারী আন্দোলনে নেমেছে পুরুষদের সঙ্গে অসমতা বজায় রাখার জন্য৷

default

অধিকার পাবেন কি এসব নারী?

আন্দোলনের নাম ‘মাই গার্ডিয়ান নোজ বেস্ট ফর মি'৷ এর মাধ্যমে পুরুষদের অভিভাবকত্বের অধিকারকে ধরে রাখতে চান সৌদি আরবের নারীরা৷ গত বছর জেড্ডার রওদা আল-ইউসুফ এই আন্দোলনের সূচনা করেন৷ এখন এই আন্দোলনের সদস্য সংখ্যা কয়েক হাজার এবং এর নিজস্ব ওয়েবসাইটও আছে৷

‘‘আমার খুব দুঃখ লাগে, যখন দেখি অল্পসংখ্যক নারী আছেন, যারা তথাকথিত নারী মুক্তির কথা বলেন, যা ইসলামী শরীয়াহ কিংবা আরবের ঐতিহ্যগত মূল্যবোধকে সমর্থন করেনা৷'' একথা বলেন আল-ইউসুফ, যার দাদা সোমালিয়া থেকে এসেছিলেন সৌদি আরবে৷

Islam, Internet, Männer sitzen vor einem Computer in einem Internetcafe

অনেক ছোট বেলা থেকেই এরা মায়ের, বোনের এবং মেয়ের অভিভাবক

সৌদি আরবের নারীদের ভোট কিংবা গাড়ি চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়না৷ অবিবাহিত মেয়েদের বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে হলে বা বিয়ে করতে হলে অনুমতি নিতে হয় বাবার কাছ থেকে৷ অন্যদিকে বিবাহিত নারীদের অভিভাবক তাঁদের স্বামী৷ আবার কোনো অবিবাহিত মেয়ের বাবা যদি মারা যান, তাহলে তাঁর ভাই কিংবা চাচা অভিভাবকের দায়িত্ব ঘাড়ে নেন৷ এমনকি একজন নারী কাজ করতে পারবেন কিনা, সেই সিদ্ধান্তও আসে পুরুষ অভিভাবকের কাছ থেকে৷ বয়স যদি পঁয়তাল্লিশের ওপরেও হয়, তিনি যদি বাইরে বেড়াতে যেতে চান বা ভ্রমণে যেতে চান, তাঁকে অবশ্যই আগে পুরুষ অভিভাবকের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হয়৷

আল-ইউসুফ পারিবারিক বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে টেলিভিশনে একটি অনুষ্ঠান করতে চান৷ অদূর ভবিষ্যতে বিষয়টি নিয়ে একটা প্রামাণ্য চিত্রও নির্মাণ করতে চান তিনি৷ তাঁর এই আন্দোলনের একজন সমর্থক হচ্ছেন সৌদি রাজ পরিবারের নারী সদস্য প্রিন্সেস আবদুল্লাহ বিন্ত জালাউয়ি আল-সৌদ৷

তবে আল-ইউসুফের এই প্রচারণার বিরূপ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে সৌদি আরবের নারীবাদীদের ছোট্ট দলটি, যারা পুরুষ অভিভাবকত্ত্ব থেকে বেরিয়ে আসতে চায়৷ এই দলের মধ্যে আছেন লেখিকা ও সাংবাদিক ওয়াজেহা আল-হায়দার৷ গত জুন মাসে আল-হায়দার মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা'র কাছে একটি খোলা চিঠি লেখেন৷ সেই চিঠিতে তিনি ওবামাকে বাদশা আবদুল্লাহ'র সঙ্গে পরবর্তী সাক্ষাতকালে সৌদি আরবের মেয়েদের পুরুষ দাসত্ব থেকে মুক্ত করার জন্য চাপ প্রয়োগ করার জন্য আবেদন জানান৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস
সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়