অর্থনৈতিক স্বাধীনতা সূচকে অবস্থা বদলায়নি বাংলদেশের | বিশ্ব | DW | 06.02.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

অর্থনৈতিক স্বাধীনতা সূচকে অবস্থা বদলায়নি বাংলদেশের

সূচকের হিসেবে, বিচারবিভাগের কার্যকারিতা, সম্পত্তির অধিকার নিরূপণে সরকারের ন্যায়পরায়ণতা, বাণিজ্য ও শ্রমের স্বাধীনতা – এ সব বিষয়ে বাংলাদেশ খুব একটা এগোতে পারেনি৷

গতকাল প্রকাশিত যুক্তরাষ্ট্রের হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের করা ২০১৮ সালের অর্থনৈতিক স্বাধীনতা সূচকে সারা বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান ১২৮৷ আর দক্ষিণ ও দক্ষিণ এশিয়ার ৪৩টি দেশের মধ্যে ২৯তম৷ পেছনে ফেলেছে ভারত (৩০তম), পাকিস্তান (৩১তম), নেপাল (৩২তম) ও ভিয়েতনামকে (৩৫তম)৷

বাংলাদেশের সার্বিক স্কোর ৫৫ দশমিক ১৷ গেল বছরের চেয়ে ০ দশমিক ১ পয়েন্ট বেড়েছে৷ তবে এর অর্থ এই নয় যে, বাংলাদেশ ভালো করছে৷ বৈশ্বিক হিসেবে বাংলাদেশ অনেক পিছিয়ে৷

সূচকে বাংলাদেশ চ্যাপ্টারে দেশটির সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে৷ সেখানে উঠে এসেছে দেশের রাজনৈতিক, প্রশাসনিক ও অবকাঠামোগত দুর্বলতার কথাগুলো৷

বলা হয়েছে, দীর্ঘমেয়াদি রাজনৈতিক অস্থিরতা, দুর্বল অবকাঠামো, ভয়াবহ দুর্নীতি, অপর্যাপ্ত বিদ্যুতায়ন এবং অর্থনৈতিক সংস্কারগুলোর ধীর প্রয়োগ সত্ত্বেও গত দু'দশকে গড়ে ৬ ভাগ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হয়েছে বাংলাদেশের৷

তারা বলছে, বাংলাদেশে সম্পত্তি আইনগুলো সেকেলে৷ সম্পত্তির বিতরণে আছে অসাম্য৷ বিচার বিভাগ স্বাধীন নয়৷ চুক্তির বাস্তবায়ন ও দ্বন্দ্ব নিরসন প্রক্রিয়ায় দক্ষতার অভাব আছে৷ এছাড়া দূর্নীতি ও অপরাধ, আইন প্রয়োগে দুর্বলতা, আমলাতান্ত্রিক অস্বচ্ছতা ও রাজনৈতিক দলীয়করণের কারণে সরকারের গ্রহণযোগ্যতা প্রশ্নবিদ্ধ৷

জেডএ/ডিজি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়