1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

অভিনন্দন শচীন তেন্ডুলকর!

শচীন রমেশ তেন্ডুলকার৷ ভারতীয় ক্রিকেট থেকে বিশ্ব ক্রিকেটের বিস্ময়৷ যিনি এমনকি কিছু ক্ষেত্রে ছাপিয়ে গেছেন কিংবদন্তি ডন ব্র্যাডম্যানকেও৷ আজ, ১৫ নভেম্বর শচীন প্রথমবার নেমেছিলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে৷

default

সার ডন শচীনের খেলা দেখে তাঁর মধ্যে নিজেকে খুঁজে পেয়েছিলেন৷

বয়স মাত্র ষোলো৷ সাল ১৯৮৯, করাচিতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্ট ম্যাচ৷ ওপেন করতে মাঠে নামল একটি পাঁচ ফুট পাঁচ ইঞ্চির রোগাসোগা কিশোর৷ আগে থেকেই পাকিস্তানের নামজাদা পেস বোলাররা তাকে দুরন্ত ফাস্ট বল দিয়ে অভ্যর্থনা জানাতে তৈরি৷ প্রথম ইনিংসটা শেষ হল মাত্র পনেরো রানেই৷ শচীন বোল্ড ওয়াকার ইউনুসের বলে৷ পরের টেস্ট শিয়ালকোটে৷ সেখানেও একইরকম দুরন্ত বাউন্সার৷ ফেটে গেল নাক৷ রক্ত গড়াচ্ছে নাক থেকে৷ কোনরকম চিকিৎসা নিতে অস্বীকার করে খেলে গেল কিশোর শচীন৷ বোঝা গেল, এই ছেলে মাঠ শাসন করতে এসে গেছে৷ প্রমাণ মিলল পেশাওয়ারের প্রদর্শনী ম্যাচে৷ সেখানে ১৮ বলে ৫৩ রান ষোল বছরের শচীনের৷ বিখ্যাত পাকিস্তানি স্পিনার আব্দুল কাদিরের এক ওভারে শচীনের সংগ্রহ ২৮ রান৷ এই ম্যাচ প্রসঙ্গে পরে সে সময়ের ভারতীয় ক্যাপ্টেন ক্রিস শ্রীকান্ত লিখেছিলেন, শচীনের এই ইনিংসটাই তাঁর জীবনে দেখা সেরা ব্যাটিং ইনিংস৷

Indien Sachin Tendulkar

মাঠে ও বাইরে শচীনের খ্যাতি কম নয়

৯০ সালে ইংল্যন্ডের বিরুদ্ধে ওল্ড ট্র্যাফোর্ড টেস্টে মাত্র সতেরো বছর বয়সে প্রথম সেঞ্চুরি দিয়ে শুরু৷ বিশ্ব ক্রিকেটে দ্বিতীয় কনিষ্ঠতম সেঞ্চুরির মালিক হলেন সেদিন শচীন৷ এই জয়যাত্রা এখনও চলছে৷ এই সাঁইত্রিশ বছর বয়সেও৷ আন্তর্জাতিক টেস্ট ক্রিকেটে শচীনের সেঞ্চুরির মোট সংখ্যা ৪৯ টি৷ একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে সেঞ্চুরি ৪৬টি৷ বিশ্বের সবকটা ক্রিকেট খেলিয়ে দেশের যাবতীয় পেস বা স্পিন বোলারকে অক্লেশে খেলে যাচ্ছেন শচীন আজও৷ ক্রিকেট দুনিয়ায় ব্যাটিং-এর সবরকমের রেকর্ডই এই পাঁচ ফুট পাঁচ ইঞ্চির লিটল মাস্টারের পকেটে৷ একটাই উদাহরণ দেব, টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটা, ১৪,২৪০ রান৷ সুখের বিষয়, শচীন আজও খেলে চলেছেন৷ বয়স, ফিটনেস, শারীরিক সমস্যা কিছুই তাঁকে আটকাতে পারেনি, পারবেও না৷ এই তো সেদিন, অক্টোবরের দশ তারিখে গোয়ালিয়রের রূপ সিং রাঠোর স্টেডিয়ামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্টে শচীন ২০০ রানে অপরাজিত রয়ে গেলেন৷ সেটাই ছিল শচীনের ৪৯ তম টেস্ট সেঞ্চুরি৷ বলে রাখা ভালো, তার অনেকদিন আগেই শচীন সার ব্র্যাডম্যানকে ছাপিয়ে গেছেন৷

Der indische Cricketstar Sachin Tendulkar

মাঠে তাঁর জাদু মন কাড়ার মতো

সার ডন শচীনের খেলা দেখে তাঁর মধ্যে নিজেকে খুঁজে পেয়েছিলেন৷ নিশ্চিত হতে স্ত্রী জেসিকে তিনি বলেন, শচীনের খেলা দেখতে৷ জেসি একমত হওয়ার পর সার ডন তাঁর আত্মজীবনীতে লিখে গেছেন, শচীনের খেলা, স্টাইল আর মাঠে তার আচরণ, সবকিছুতেই রয়েছে ডন ব্র্যাডম্যানের ছায়া৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়
সম্পাদনা: আবদুল্লাহ আল ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়