1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

অভিজিৎ হত্যা: অনলাইনে প্রতিবাদের ঝড়, অফলাইনে নীরবতা

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন ব্লগার অভিজিৎ রায়ের হত্যাকাণ্ড নিয়ে অনলাইনে প্রতিবাদের ঝড় বয়ে গেলেও, রাজপথে সেই ঝড়ের কোনো আভাস নেই৷ বরং বিভিন্ন মহলের নীরবতার কারণে নানা প্রশ্নের জন্ম দিচ্ছে, কাটছে না ধোঁয়াশা৷

অভিজিৎ রায় হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ' শীর্ষক একটি কর্মসূচির কথা ২৬ ফেব্রুয়ারি রাতেই ফেসবুকে শেয়ার করেছিলেন আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া৷ ফেসবুক ইভেন্টটি শেয়ার করার সময় তিনি লেখেন, ‘‘হাজার পাঁচেক লোক হলেও একটা ভিন্ন ম্যাসেজ দেয়া যেত৷ কোটি মানুষের ঢাকায় কি হাজার পাঁচেক মানুষও নেই যারা হত্যার প্রতিবাদ করতে পারে? জানি নেই৷ আসবে না৷ যারা আসবে তারা নিজের টানেই আসবে৷''

জ্যোতির্ময় বড়ুয়া একজন বিজ্ঞ মানুষ৷ ব্লগারদের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর৷ সেই অভিজ্ঞতা থেকে সম্ভবত এটা শঙ্কা করেছিলেন তিনি৷ বিস্ময়কর হলেও সত্য বর্বর এই হত্যাকাণ্ডের পর সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে এখনো কোনো মন্তব্য করা হয়নি৷ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অভিজিৎ হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানাননি, এই নিয়ে আনুষ্ঠানিক কোন মন্তব্য করেননি৷ সাংবাদিক গোলাম মোর্তোজা এই বিষয়ে ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘হত্যাকাণ্ডের পর ব্লগার রাজীবের বাড়িতে প্রধানমন্ত্রী যাওয়ায় যে প্রতিক্রিয়া হোফাজতে ইসলাম দেখিয়েছিল, সেই সুযোগ আর একবার দিতে চায়নি সরকার৷''

তবে সরকার নীরব আর রাজপথে প্রতিবাদী মানুষের উপস্থিতি কম হলেও অনলাইনে কিন্তু অভিজিৎ হত্যাকাণ্ডের শক্ত প্রতিবাদ হচ্ছে৷ বিশ্বের বড় বড় সব গণমাধ্যম এই বিষয়ে একের পর এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে যাচ্ছে৷ হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি করেছে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংগঠন৷ অনলাইন পরিসংখ্যান বিষয়ক ওয়েবসাইট টপসি ডটকম জানাচ্ছে, ‘অভিজিৎ রায়' নামটি রয়েছে এমন টুইটের সংখ্যা পঁয়ত্রিশ হাজারের বেশি৷ এরমধ্যে ২৬ হাজার টুইট করা হয়েছে গত এক সপ্তাহে৷

উল্লেখ্য, ব্লগার এবং অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট অভিজিৎ রায়কে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা৷ হামলায় গুরুতর আহত হন তাঁর স্ত্রী রাফিদা আহমেদ৷ নাস্তিক এই ব্লগারকে হত্যার হুমকি আগেই অনলাইনে দিয়েছিল উগ্রপন্থিরা৷ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ফারাবি শফিউর রহমান নামক এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়