1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

অবসর নিচ্ছেন লন্ডনে পলাতক পাকিস্তানি ক্রিকেটার জুলকারনাইন

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের বর্তমান অবস্থাটি ঠিক সুখকর নয়৷ স্কিপারসহ মোট তিন জন খেলায়াড়ের বহিস্কারের পর, সোমবার প্রাণনাশের হুমকির ভয়ে দুবাইয়ের হোটেল থেকে পালিয়ে লন্ডনে লুকিয়েছেন দলের উইকেটকিপার জুলকারনাইন হায়দার৷

default

উইকেটকিপার জুলকারনাইন

জানা গেছে, লন্ডনে পৌঁছে মঙ্গলবার জুলকারনাইন ঘোষণা করেছেন যে, তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকেই অবসর নিচ্ছেন৷ গতকাল দুবাই থেকে পালিয়ে লন্ডনে পৌঁছানোর পর আজ মঙ্গলবার জুলকারনাইন এ বক্তব্য দিলেন৷ পালানোর কারণ হিসেবে জুলকারনাইন যা জানিয়েছেন তা হচ্ছে - ম্যাচ ফিক্সিং না করলে তাঁকে নাকি মেরে ফেলা হবে এমন হুমকি দেওয়া হয়েছিল৷

জানা গেছে, দুবাইয়ের হোটেল থেকে সোমবার জুলকারনাইন পালিয়ে ঘন্টাখানেকের মধ্যেই লন্ডন পৌঁছেছিলেন৷ লন্ডন পৌঁছে স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে জুলকারনাইন জানিয়েছেন, তাঁকে ম্যাচ ফিক্সিং করতে বলা হয়েছিল৷ কেউ একজন তাঁকে জানিয়েছিল যে, হয় পাতানো ম্যাচ খেলতে হবে অন্যথায় মৃত্যু৷

তিনি বলেছেন, ‘আমি শেষপর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ারই সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷ কেননা, আমাকে এবং আমার পরিবারকে ক্রমাগত মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হচ্ছিল৷ আমার জন্য অবসর নেওয়াটাই ভালো হবে৷'

Zulqarnain Haider Cricketspieler

পাকিস্তানের ক্রিকেট জগত আরও সংকটের মধ্যে ডুবে যাচ্ছে

পাকিস্তান আর দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে চলা পঞ্চম এবং শেষ খেলাটির ঘন্টাখানেক আগে জুলকারনাইন দুবাই ছেড়েছিলেন৷ তাঁর এই রহস্যময় পলায়ন পাকিস্তানের সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকার খেলায় খানিক বিপত্তিই ঘটিয়েছে৷ জানা গেছে, বিকল্প উইকেটকিপার হিসেবে শেষপর্যন্ত আদনান আকমলকে ডেকে আনতে হয়েছিল৷

হিথ্রো বিমানবন্দরে এই পাকিস্তানি ক্রিকেটার নাকি ঘন্টাচারেক ধরে স্থানীয় ইমিগ্রেশন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপ করে তবেই লন্ডনে ঢুকেছেন৷ যদিও যুক্তরাজ্যে রাজনৈতিক আশ্রয় চাইবেন কি না সেসম্পর্কে এখনও কোন সিদ্ধান্ত তিনি নেন নি বলেই জানিয়েছেন তিনি৷ জুলকারনাইন বলেছেন, ‘রাজনৈতিক আশ্রয় চাইবো কিনা এসম্পর্কে আমি এখনো পর্যন্ত কোনকিছু ভাবিনি, আমার খুব একটা টাকা পয়সাও নেই যে একজন আইনজীবি রাখবো৷ এখন আমার একমাত্র চিন্তা বা দুশ্চিন্তা যাই বলি না কেন তা হচ্ছে, লাহোরে আমার পরিবারের নিরাপত্তার বিষয়টি৷'

চব্বিশ বছরের এই তরুণ ক্রিকেটার মাত্র একটি টেস্ট আর একদিনের চারটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন৷ জুলকারনাইন অবশ্য দল ছাড়া নিয়ে তেমন অনুতপ্ত নন৷ তিনি বলেছেন, যা সঠিক মনে হয়েছে, তাই তিনি করেছেন৷ তিনি বলেন, ‘এখনই এর বিস্তারিত ব্যাখ্যায় আমি যাচ্ছি না৷ কিন্তু ব্যাপার হচ্ছে - আমি কোন দুর্নীতি করতে পারবো না বা আমার দেশের বিরুদ্ধে যেতে পারবো না৷'

এদিকে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছে, জুলকারনাইন তাঁকে দেওয়া এই হুমকি সম্পর্কেও কিছু জানান নি কিম্বা আকস্মিকভাবে দল ছেড়ে চলে যাওয়ার আগেও তাদের অনুমতি নেন নি৷ বিনা অনুমতিতেই এই তরুণ ক্রিকেটার পালিয়ে দুবাই ছেড়েছেন৷

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড বা পিসিবি জানিয়েছে - জুলকারনাইন রহস্যের পূর্ণ তদন্ত করা হবে, এর পেছনের কারণসমুহ এবং দলত্যাগ করে লন্ডন পলিয়ে যাওয়ার সবকিছু সবিশেষ খতিয়ে দেখা হবে৷

পিসিবির এক কর্তাব্যক্তি, তফাজ্জ্বল রিজভি জানিয়েছেন, জুলকারনাইনের এই অদ্ভুত কায়দায় পালানোর বিষয়টি ঘোলাটে৷ তবে এটি স্পষ্ট যে, এর ফলে পাকিস্তান ক্রিকেটের সম্মানের হানি হয়েছে৷ তিনি আরো বলেন, অবশ্য যদি সে সত্যিই সমস্যায় পড়ে থাকে সেক্ষেত্রে আমরা তাঁকে সর্বতোভাবে সহযোগিতা করবো কারণ সে দুর্নীতিবাজদের সহযোগিতা করেনি৷

প্রতিবেদন: হুমায়ূন রেজা

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

নির্বাচিত প্রতিবেদন