1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

অবসরের ঘোষণা দিলেন গোলকিপার লেমান

জার্মানির খ্যাতনামা গোলকিপার ইয়েন্স লেমান পেশাদার ফুটবল থেকে বিদায় নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৷ মঙ্গলবার তিনি জানিয়েছেন স্টুটগার্টের হয়ে এই মৌসুম শেষ করার পর আর খেলবেন না তিনি৷

default

এখন স্টুটগার্টের হয়ে খেলছেন লেমান

পারিবারিক কারণেই অবসরে যাচ্ছেন জানিয়ে লেমান বলেছেন, আগামী ৮ই মে হফেনহাইমের বিপক্ষে স্টুটগার্টের হয়ে খেলাই হবে পেশাদার ফুটবলে তাঁর শেষ খেলা৷ তিন সন্তানের জনক ৪০ বছর বয়সি লেমান বলেন, ‘‘আমি এখনও সক্ষম এবং অবশ্যই আমি ফুটবল খেলাটা মিস করবো''৷

Jens Lehmann mit Frau Conny

স্ত্রী কনি’র সঙ্গে লেমান

জার্মানির জাতীয় দলের হয়ে ২০০৬ সালে বিশ্বকাপে এবং ২০০৮ সালের ইউরো কাপে লড়েছেন লেমান৷ ওই বিশ্বকাপে তৃতীয় এবং ইউরো কাপে রানার্স আপ হয়েছিল জার্মানি৷ জাতীয় দলের হয়ে ৬১টি ম্যাচ খেলেছেন লেমান৷

আর্সেনালের এই সাবেক গোলরক্ষকের ক্লাব ক্যারিয়ারও দুর্দান্ত৷ ১৯৯৭ সালে ‘ইউইএফএ' কাপের শিরোপা জয়ে শাল্কের পক্ষে খেলেছিলেন লেমান৷ ২০০২ সালের ডর্টমুন্ডের হয়ে বুন্ডেসলিগার শিরোপা জিতেছেন এবং ২০০৪ এবং ২০০৫ সালে আর্সেনালের হয়ে ইংলিশ কাপ জেতার সম্মান অর্জন করেছেন লেমান৷ ২০০৬ সালে প্যারিসে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালেও খেলেন লেমান৷ কিন্তু মাত্র ১৯ মিনিটের মাথায় লাল কার্ড পেয়ে বেরিয়ে আসতে হয় তাঁকে মাঠ থেকে৷

১৯৮৮ থেকে পুরো এক দশক ধরে শাল্কেতে খেলেছেন লেমান৷ ১৯৯৮ এ যোগ দেন এসি মিলান-এ৷ একই বছরে চলে যান ডর্টমুন্ডে৷ ২০০৩ পর্যন্ত সেখানে খেলে লেমান যোগ দেন আর্সেনালে৷ ছিলেন ২০০৮ সাল পর্যন্ত৷ ওই বছর থেকেই স্টুটগার্টের হয়ে খেলছেন লেমান৷

অবসরের ঘোষণা দেওয়ার সময়ে লেমান বলেছেন, ‘‘স্টুটগার্টে দুইটা মৌসুম দারুণ কেটেছে৷ আমি আশা করছি ইউরোপিয়ান বাছাইয়ের খেলা দিয়ে এই মৌসুমটা শেষ করতে পারবো আমি৷''

এ বছর বিশ্ব ফুটবল কাপের সময় লেমান একটি পে টেলিভিশন চ্যানেলের ভাষ্যকার হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকায় উপস্থিত থাকবেন৷ কীভাবে এই নতুন দায়িত্ব তিনি পালন করতে চান? লেমানের স্পষ্ট জবাব: ‘‘বিশ্লেষক হিসেবে৷ মাঠে যখন থাকিনা সেটাই কিন্তু আমার স্বভাব৷''

প্রতিবেদন : মুনীর উদ্দিন আহমেদ

সম্পাদনা : আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়