1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

অবশেষে আয়েশা সিদ্দিকীকে তালাক দিলেন শোয়েব মালিক

চারদিন ধরে পত্রিকার শিরোনাম, টেলিভিশনে নানা প্রচারণা, রেডিওর খবর....সব কিছুর পর এবার অবসান হলো এক বিতর্কের৷ আর এই বিতর্কের অবসানটি করলেন পাকিস্তানি ক্রিকেটার শোয়েব মালিক নিজেই৷

default

শোয়েব মালিক

বুধবার তিনি তালাক দিলেন তাঁর প্রথম পক্ষের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকীকে৷ তাঁকে প্রতারণা করা হয়েছিল – এই কারণ দেখিয়েই তিনি বিবাহ বিচ্ছেদের কাগজে দস্তখত করলেন৷

টেনিস তারকা সানিয়া মির্জার সঙ্গে শোয়েব মালিকের বিয়ের তারিখ ১৫ই এপ্রিল৷ আর বিয়ে উপলক্ষেই আত্মীয়-স্বজন নিয়ে দিন কয়েক আগেই হায়দ্রাবাদে এসে উপস্থিত হলেন শোয়েব মালিক৷ পত্র পত্রিকায় উঠলো বিয়ের খবর৷

আর এর সঙ্গে সঙ্গেই মামলা করে বসলেন আয়েশা সিদ্দিকী৷ তিনিও থাকেন একই শহরে, হায়দ্রাবাদে৷ ২০০২ সালে আয়েশা এবং মালিকের বিয়ে হয়েছিল টেলিফোনে৷ আর ঘর সংসার করার বদলে মালিক এখন অন্য মেয়েকে বিয়ে করছে ! মামলার অভিযোগ নামায় মালিকের বিরুদ্ধে প্রতারণা, হয়রানি, অপরাধ প্রবণতা এবং তাঁকে মুখ বন্ধ রাখার জন্য ধমকি দেবার কথা বলা হয়৷ এরপরই

Sania Mirza

শোয়েব মালিকের বিবাহ বিচ্ছেদের পর কি ভাবছেন সানিয়া ?

হায়দ্রাবাদের পুলিশ মামলার তদন্তের স্বার্থে শোয়েব মালিকের পাসর্পোট আটক করে৷ বলে দেয়, ঘটনার সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত তিনি ভারত ত্যাগ করতে পারবেন না৷

প্রথম দিকে কিন্তু আয়েশা সিদ্দিকীর অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেট দলের সাবেক এই খেলোয়াড়৷ কিন্তু পরে আর বেশি দূর এগুতে পারলেন না৷ মেনে নিলেন এই অভিযোগ, কেবল বললেন, ‘টেলিফোনে তাদের বিয়ে হয়েছিল ঠিকই৷ কিন্তু তখন যে মেয়ের ছবি পাঠানো হয়েছিল, সে মেয়ে আয়েশা সিদ্দিকী নয়৷ তাঁর সঙ্গে ছবি দিয়েই প্রতারণা করা হয়েছে৷'

হায়দ্রাবাদের এক শীর্ষ রাজনীতিক, একটি নারীবাদী সংগঠনের নেতা এবং স্থানীয় মুসলিম নেতার মধ্যস্থতায় বিয়ে সংক্রান্ত জটিলতার অবসান হয়৷ অবশ্য আয়েশাও চেয়েছিলেন বিবাহ বিচ্ছেদ৷ তাই হলো৷ আয়েশার আইনজীবী বলছেন, ‘এখন আয়েশার দাবি পূরণ হয়েছে, তাই তিনি এই মামলাও তুলে নিয়েছেন৷'

এখন অপেক্ষা ১৫ এপ্রিলের৷ তবে এই বিবাহ বিচ্ছেদ সংক্রান্ত নাটকের অবসানের পর কনে সানিয়া মির্জার কোন মন্তব্য কিন্তু এখনো পাওয়া যায়নি৷

প্রতিবেদন : সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা : দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়