1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

অবরোধ সত্ত্বেও কর্মব্যস্ত দিন, রাজধানীতে যানজট

বিরোধী ১৮ দলের অবরোধের দ্বিতীয় দিন রাজধানী ঢাকায় দেখা গেছে ভিন্ন চিত্র৷ আগের অবরোধের সঙ্গে এই চিত্র মেলানো যায় না৷ সাধারণ কর্মব্যস্ত দিনের মতো রাজধানী যেন তার চেহারা ফিরে পেয়েছে৷ আর ফিরে এসেছে যানজট৷

সকাল থেকে যতই সময় গড়িয়েছে, ততই যানবাহন রাস্তায় বেড়েছে রাজধানীতে৷ বাস, মিনিবাস ছাড়াও ব্যক্তিগত যানবাহন চলাচল শুরু করেছে স্বাভাবিকের মতোই৷ শুক্রবার থেকে দূর পাল্লার যানবাহনও পুরোদমে চলবে বলে জানিয়েছেন পরিবহন মালিকরা৷

অবরোধ, তাই কাজের খাতিরে মিরপুর থেকে রিকশা নিয়েই কারওয়ান বাজার যাবেন বলে বাসা থেকে বের হন একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শামীম আহমেদ৷ কিন্তু মিরপুর ১০ নম্বরে গিয়ে তিনি অবাক৷ গণপরিবহন চলছে আগের মতোই৷ যানজট শুরু হয়েছে রীতিমতো৷ কি আর করা? এরপর তিনি বাসেই চেপে বসেন৷ তবুও ভয় ছিল পথে কোথাও হামলার শিকার হন কিনা৷ কারওয়ান বাজার পৌঁছে তিনি হাফ ছেড়ে বাঁচেন৷ ডয়চে ভেলেকে বলেন, এতদিন অরোধে মিরপুর থেকে আসতে তাঁর রিকশা ভাড়া দিতে হতো ৬০ টাকা৷ আসা-যাওয়ায় ১২০ টাকা৷ তবে বৃহস্পতিবার অন্তত তা লাগলো না৷ তাঁর কথা, ভয় আর নাশকতা না থাকলে এভাবেই নগরবাসী বেরিয়ে আসবেন৷ চলবে যানবাহন৷

নগরীর ব্যস্ততম এলাকা ফার্মগেটে কথা হয় মিনিবাস চালক আব্দুল কাদেরের সঙ্গে৷ তিনি জানান, আর কতদিন ঘরে বসে থাকবেন৷ গাড়ি না চললে মালিক বেতন দেয় না৷ কারণ, তাঁদের বেতন দেয়া হয় দৈনিক ভিত্তিতে৷ তাই বাধ্য হয়েই মালিকের পরামর্শে মিনিবাস বের করেছেন৷ তিনি জানান, তাঁরা সভা করে একত্র হয়ে বৃহস্পতিবার থেকে মিরপুর-মতিঝিল রুটে বাস চালানোর সিদ্ধান্ত নেন৷ ঢাকার অন্যান্য এলাকায়ও একই অবস্থা৷ বেশ কিছিুদিন পর ট্রাফিক পুলিশ যেন কর্মব্যস্ত হয়ে পড়েছে৷ তারা যানবাহন সামলাতে আগের মতোই হিমশিম খাচ্ছেন৷



যাঁরা অবরোধের শহরে ফাঁকা রাস্তায় রিকশা চড়ে বিভিন্ন জায়গায় যাওয়ার জন্য বের হয়েছিলেন, তাঁরাও যানজটে পড়ে হতাশ৷ মোটর সাইকেল আরোহীরা যানজট এড়িয়ে দ্রুত যাওয়ার জন্য আগের মতো ফুটপাতে উঠেছেন৷ অটেরিকশাও চলছে যথারীতি৷

ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি খন্দকার এনায়েত উল্লাহ ডয়চে ভেলেকে জানান, গাড়ি না চালিয়ে তাঁদেও উপায় নেই৷ তাই বাধ্য হয়ে তাঁরা রাস্তায় গণপরিবহন নামিয়েছেন৷ তা নাহলে অনেক পরিবহন কোম্পানিই ঋণের দায়ে বসে যাবে৷ তিনি জানান, দূর পাল্লার বাস এখনো তেমন চলাচল শুরু করেনি৷ তবে শুক্রবার থেকে পুরোদমে দূর পাল্লার বাস চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মালিকরা৷ ঢাকায় প্রায় চার হাজার বাস, মিনিবাস আছে৷ বুধবার প্রায় সব বাস-মিনিবাসই চলাচল করছে বলে জানান খন্দকার এনায়েত উল্লাহ৷ তাঁর কথায়, ঢাকার আশেপাশের জেলায় ঢাকা থেকে বাস,মিনিবাস চলাচল করছে৷ আর সায়েদাবাদ, যাত্রাবাড়ি ও গাবতলী থেকে কিছু দূর পাল্লার বাস বৃহস্পতিবার পুলিশ পাহাড়ায় ছেড়ে গেছে৷

এদিকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক নাহলেও লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক হয়ে আসছে৷ শুক্রবার থেকে ট্রেন চলাচলও স্বাভাবিক হয়ে যাবে বলে জানিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ৷

ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম ডয়চে ভেলেকে জানান, তারা রাজধানীর যানবাহন এবং সড়কের নিরপত্তা বহাল রেখেছেন৷ কাউকে বা কোনো যানবাহনকে চলাচলে বাধা দেয়া বেআইনি৷

গণতন্ত্রের অভিযাত্রার পর, ১লা জানুয়ারি, অর্থাৎ মঙ্গলবার থেকে ৫ই জানুয়ারির নির্বাচন প্রতিহত করতে লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করে বিএনপির নেতৃত্বে বিরোধী ১৮ দল৷ মঙ্গলবার ঢাকায় অবরোধের ফলে যানবাহন অনেক কম থাকলেও, বুধবার অবরোধে উল্লেখ করার মতো কোনো প্রভাব পড়েনি ঢাকায়৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়