1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

অপরাধের চরম শাস্তি মৃত্যুদণ্ড

‘‘অপরাধের চরম শাস্তি মৃত্যুদণ্ড কোনো সমাজের জন্য ভালো না খারাপ এই প্রশ্নটি বহু বিতর্কিত৷ পৃথিবীর ইতিহাসে চিরকাল অপরাধের চরম শাস্তি হিসাবে মৃত্যুদণ্ডকে ব্যবহার করা হচ্ছে৷''

নতুন দিল্লির নিয়মিত পাঠক সুভাষ চক্রবর্তীর লম্বা ই-মেলটির শুরু তিনি এভাবেই করেছেন৷ তাঁর পরের বক্তব্য এরকম, ‘‘সামাজিক ন্যায়বিচারের লক্ষ্যে মৃত্যুদণ্ডের মতো নিষ্ঠুর এবং অস্বাভাবিক শাস্তি নিয়ে যথেষ্ট বিতর্ক আজও রয়েছে, কিন্তু বাস্তব এই যে মৃত্যুদণ্ড যেমন ছিল, এখনো আছে এবং এই শাস্তি একেবারে বন্ধ হবার সম্ভাবনা সুদূর প্রসারিত৷ এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের ওপর ‘বিশ্ব' শিরোনামের পাতায় প্রতিবেদন এবং মৃত্যুদণ্ড: একদিকে মানবতা, অন্যদিকে রাষ্ট্র ও ধর্ম নিয়ে সংবাদভাষ্য বিচার বিভাগের কঠিনতম সিদ্ধান্তের দিকটিই তুলে ধরল৷

সুভাষ চক্রবর্তী আরো লিখেছেন,''

বিভিন্ন দেশের খাবার রীতি-নীতি নিয়ে ১২টি তথ্য ভিত্তিক ছবির উপস্থাপনা আর মোজা নিয়ে অন্যরকম কিছু তথ্য সহ ১৩ ছবির প্রদর্শনী ভালো লাগলো৷ শুভেচ্ছা রইলো সবার জন্য৷''

পরের মতামত জানিয়েছেন মো. নুরুজ্জামান ইসলাম মাদু জয়পুরহাট, বাংলাদেশ থেকে৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘বাংলাদেশের বিজ্ঞানীর দারুণ উদ্ভাবন, প্রতিবেদটি পড়ে খুব ভালো লাগল, এ ডিভাইজটি গাড়ি কোথায় আছে তা জানাতে সক্ষম, এটা একটি অসাধারণ আবিষ্কার, এটা ব্যবহারে গাড়ির মালিকে ফাঁকি দিয়ে ড্রাইভারের ভাড়া কামাই বন্ধ হবে৷''

- সবাইকে ধন্যবাদ৷ আবার লিখবেন কিন্তু! তারই অপেক্ষায় রইলাম আমরা৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন