1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

অন্যের প্রাণ বাঁচিয়ে ফ্রান্সের নাগরিকত্ব পেলেন এক মুসলমান

প্যারিসে নাকি মুসলিম অধ্যুষিত এমন এলাকাও আছে যেখানে অন্যদের যেতে ভয় করে৷ এমন ধারণার কথা প্রচার করায় ফক্স নিউজের বিরুদ্ধে মামলা ঠুকতে যাচ্ছিলেন প্যারিসের মেয়র৷ তবে সে খবরকেও ছাপিয়ে গেছে এক মুসলিম তরুণের মানবিক সাহসিকতা৷

রাজধানী প্যারিসের শার্লি এব্দো পত্রিকায় হামলার পর থেকে এক ধরনের সতর্ক অবস্থার মধ্যেই রয়েছে ফ্রান্স৷ হামলাকারীরা দাবি করেছিল, মুসলমানদের মহানবীকে অপমান করার প্রতিশোধ নিতেই শার্লি এব্দোয় এমন নিষ্ঠুর এক হামলা চালানো হয়েছে৷ ইউরোপের কোথাও কোথাও এরপর মুসলমানদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানোর চেষ্টাও করেছে কোনো কোনো মহল৷ মিডিয়া টাইকুন রুপার্ট মারডকের ফক্স নিউজ চ্যানেলের একটি প্রতিবেদনেও সেরকম ‘বিদ্বেষমূলক' তথ্য ছিল৷

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেলটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, প্যারিসের কিছু মুসলিম অধ্যুষিত এলাকা এখন পুরোপুরি ‘নো-গো জোন', অর্থাৎ মুসলমান ছাড়া অন্য কারো জন্য সে সব এলাকা একেবারেই নিরাপদ নয়৷ প্যারিসের মেয়র আন ইডালগো এর বিরুদ্ধে শুধু প্রতিবাদে ফেটেই পড়েননি, যুক্তরাষ্ট্রের টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, ফক্স নিউজের বিরুদ্ধে তিনি মামলা করার কথাও ভেবেছিলেন৷ তিনি জানান, ফক্স নিউজ চ্যানেল একাধিকবার দর্শকদের কাছে সেই প্রতিবেদনের জন্য ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ায় মামলাটা শেষ পর্যন্ত তিনি আর করেননি৷ সিএনএন-এর সুপরিচিত মুখ ক্রিস্টিয়ান আমানপুরকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্যারিসের মেয়র এ কথা জানান৷

Frankreich Verleihung vom Helden Lassana Bathily

মানুষকে বাঁচানোর পুরস্কার হিসেবে বাটিলিকে (সবার ডানে) ফ্রান্সের নাগরিকত্ব দেয়া হয়

এদিকে প্যারিসের আরেকটি ঘটনা মানবতাবাদী এবং শান্তিপ্রিয় প্রতিটি মানুষ, বিশেষ করে শান্তিপ্রিয় মুসলমানদের জন্য স্বস্তিদায়ক সুখবর হয়ে এসেছে৷ নিজের জীবনকে ঝুঁকির মুখে ঠেলে দিয়েও অন্যের জীবন বাঁচানোয় এক মুসলিম তরুণকে পুরস্কৃত করেছে ফরাসি সরকার৷ তরুণটির নাম বাটিলি৷ মালিতে জন্ম নেয়া ৩০ বছর বয়সি এই তরুণ গত ৯ জানুয়ারি এক সুপারমার্কেটে বেশ কয়েকজনের প্রাণ বাঁচিয়েছিলেন৷ সেদিন প্যারিসের সেই সুপারমার্কেটে আচমকা হামলা চালায় এক বন্দুকধারী৷ তখন বাটিলি ছিলেন আন্ডারগ্রাউন্ডের স্টকরুমে৷ বন্দুকধারীর গুলিতে চারজন মারা যায়৷ বাটিলি আন্ডারগ্রাউন্ড থেকে উঠে এসে কয়েকজনকে নীচে নিয়ে গিয়ে লুকিয়ে থাকতে সহায়তা না করলে মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তো৷ বাটিলি পরে তাঁদের গোপন পথে বাইরে যেতে এবং পুলিশের সঙ্গে কথা বলে হামলাকারীকে হত্যা করার কাজে সহায়তাও করেন৷ এমন সাহসিকতার জন্য বুধবার বাটিলি-কে পুরস্কৃত করা হয়৷ বেশ কিছু মানুষকে বাঁচানো এবং ১৫ জন জিম্মিকে উদ্ধারে সহায়তার পুরস্কার হিসেবে বাটিলি-কে ফ্রান্সের নাগরিকত্ব দেয়া হয়েছে৷ মালির এক সাহসি তরুণকে সম্মানিত করার অনুষ্ঠানে ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী মানুয়েল ভালসও উপস্থিত ছিলেন৷

এসিবি/ এসবি (রয়টার্স, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন