1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

অনলাইন ফিটনেস ভিডিও

অ্যামেরিকার মতো জার্মানিতেও এখন অনলাইন ভিডিও দেখে নিজের ফ্ল্যাটে বসেই এক্সারসাইজ করার প্রবণতা বাড়ছে – বিশেষ করে মহিলাদের মধ্যে৷ তবে এর যে শুধু ভালোর দিকটাই আছে, এমন নয়৷

বসবার ঘরেই ঘাম-ঝরানো এক্সারসাইজ! ট্রেন্ডটা এসেছে অ্যামেরিকা থেকে, জার্মানিতেও তার ভালোই চল৷ ‘ইউজার'-দের মধ্যে একজন হলেন ২৭ বছর বয়সি সারা ব্যোডেন – থাকেন বার্লিনে৷ সারার ফিগারটা মন্দ নয়, কিন্তু তিনি আরো কিছু ওজন কমাতে চান৷ তাই গত এগারো মাস ধরে তিনি অনলাইন ফিটনেস কোর্স ফলো করছেন৷

সারা পেশায় বিউটিশিয়ান৷ সপ্তাহে পাঁচদিন করে ট্রেনিং করেন, গড়ে ৩০ থেকে ৩৫ মিনিট৷ তাঁর ল্যাপটপেই ট্রেনিং ভিডিওগুলো চলে৷ তিনি বলেন: ‘‘আমি যে বিশেষ করে অনলাইন ফিটনেস সম্পর্কে আগ্রহী ছিলাম, এমন নয়৷ বরং ভিডিওটা দেখার সময় যে সব এক্সারইজগুলো নজরে পড়েছিল, সেগুলো বেশ ভালো লেগেছিল৷ সেই সঙ্গে নিজের মর্জি মতো এক্সারসাইজ করার সুযোগ৷''

Yoga in Kenya

একটি ফিটনেস স্টুডিও-র দৃশ্য...

সারা যে ফিটনেস প্রোগ্রামটি ব্যবহার করছেন, সেটির স্রষ্টা হলেন ইউলিয়ান সিটলভ এবং আলিনা শুল্টে ইম হফ৷ প্রোগ্রামটির ইউজার বা ব্যবহারকারীরা সপ্তাহে পাঁচটি করে ভিডিও পান৷ সোশ্যাল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ইউজাররা সরাসরি তাদের ট্রেনারদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন৷ আলিনা বললেন:

‘‘আমাদের পক্ষে এই ধারণাটা, অথবা এই গোটা কর্মসূচি সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়া কাজই করত না, ইউজারদের সঙ্গে ‘ইন্টারঅ্যাক্ট' করতে আসলে আমাদের খুব ভালো লাগে – প্রত্যেকটা দিন তাদের সঙ্গে শেয়ার করতে, আবার সাথে সাথে একটা উত্তর পেতে৷ আজকাল সব কিছু এত বেশি দ্রুত হয়ে উঠেছে যে, কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই উত্তর পাওয়া যায়৷ ইউজারদের এভাবে প্রোগ্রামের অঙ্গ করে তুলতে ভালো লাগে, ওদের কাছ থেকে খবর পেতে ভালো লাগে কিনা৷''

Junge Leute beim Tanz

নাচের মধ্যে দিয়েও কিন্তু ‘ফিট’ থাকা যায়!

‘সাইজ জিরো'

ইউলিয়ান আর আলিনা প্রথমে পুরুষদের জন্য একটি ‘দশ সপ্তাহের কর্মসূচি' সৃষ্টি করেন৷ ২০১৪ সালের জানুয়ারি মাস থেকে তাঁরা মহিলাদের জন্য ‘সাইজ জিরো' ভিডিওটি বাজারে এনেছেন৷ এ যাবৎ ভিডিওটির ফলোয়ারের সংখ্যা দশ হাজার৷ নামটাই তো ‘ইন্টারেস্টিং'৷ আলিনা বললেন: ‘‘নামটার সাথে অ্যানোরেক্সি, মানে অতি রোগা হওয়ার কোনো সম্পর্ক নাই, বরং স্বাস্থ্যকর, নিয়মিত খাবার-দাবার এবং ওয়েট ট্রেনিং-এর সঙ্গে সম্পর্ক আছে৷'' তা সত্ত্বেও: আড়াই মাসের মধ্যে ৩০ কিলো ওজন কমানোর প্রতিশ্রুতি দেওয়া হচ্ছে৷

প্রোগ্রামটির ভিডিও ফলো করার খরচ পড়বে মাসে ১৪০ ইউরো – যা কিনা ফিটনেস স্টুডিও-র মাসিক ফি-র অনুরূপ৷ বলতে কি, অধিকাংশ অনলাইন অফারগুলোও এর চেয়ে অনেক বেশি সস্তা৷ জার্মানিতে যে ধরনের অফার পাওয়া যায়, তার মধ্যে ‘নিউ মুভ'-এর জন্যে মাসে মাত্র দশ ইউরো দিতে হয়৷ ওদিকে ফিটনেস স্টুডিওরাও জানে যে, তাদের অনলাইন প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছে, এমনকি কয়েকটা ফিটনেস স্টুডিও অনলাইন ফিটনেস সংস্থাগুলিকে কিনে নিতে শুরু করেছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক