1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

অধিকারের জন্য ‘ডিজিটাল বিল'এর আহ্বান লেখকদের

ডিজিটাল যুগে গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষায় গণ নজরদারির বিরুদ্ধে আইন করতে জাতিসংঘের কাছে একটি আবেদন জানিয়েছেন জার্মান লেখক ইনগো শ্যুলৎস সহ বিশ্বের অন্তত ৫০০ লেখক৷ গণ নজরদারির বিরুদ্ধে লেখকরা এই প্রথম সোচ্চার হলেন৷

‘এ স্ট্যান্ড ফর ডেমোক্রেসি ইন দ্য ডিজিটাল এজ' নামে একটি বিলে সই করেছেন ওরহান পামুক, জেএম কোয়েটজি, গ্যুন্টার গ্রাস, মার্গারেট অ্যাটউড, উইল সেল্ফ, বিয়্যোর্ক, ডেভিড ম্যালুফ, নিক কেভ, ডন ডেলিলো, নুরুদ্দীন ফারাহ এবং উমবের্তো একোসহ আরো অনেকে৷ গণ নজরদারির বিরুদ্ধে আরো লেখকদের স্বাক্ষর যোগাড় করছেন তাঁরা৷

বিলটিতে লেখা হয়েছে, সম্প্রতি কয়েক মাসে গণ নজরদারি বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক হৈচৈ হয়েছে৷ মাউসের কয়েকটি ক্লিকে যে-কোনো রাষ্ট্র আপনার মোবাইল ফোন, ইমেল, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং ইন্টারনেট সার্চ-এ প্রবেশ করতে পারছে৷ আপনার কর্মকাণ্ড, বন্ধুত্ব, লেখালেখি সব বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করছে তারা৷ কিন্তু গণতান্ত্রিক অধিকার হলো, যে যার ইচ্ছেমত মত প্রকাশ করতে পারবে, তার সিদ্ধান্ত জানাতে পারবে৷ এটা তার ব্যক্তিগত অধিকার৷

এতে আরো লেখা হয়েছে, নজরদারির আওতায় কোনো মানুষ স্বাধীন থাকতে পারে না, কোনো সমাজ গণতন্ত্রের পথে হাঁটতে পারে না৷ তাই গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য এমন পরিবেশ দরকার, যেখানে কোনো নজরদারি থাকবে না৷ নজরদারি যে-কোনো মানুষের মতামত বা চিন্তাভাবনার স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করে৷ গণ নজরদারির অর্থ হচ্ছে প্রতিটি নাগরিককে সন্দেহের আওতায় আনা, নজরদারি মানে রাষ্ট্র তার ক্ষমতার অপব্যবহার করছে৷

এ কারণে লেখকরা দাবি জানিয়েছেন যাতে এই গণ নজরদারি বন্ধ করে তাদের অধিকারে হস্তক্ষেপ না করা হয়৷ বিশ্বের প্রতিটি রাষ্ট্রকে এই অধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তাঁরা৷ সেইসাথে প্রতিটি নাগরিককে এই হয়রানির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার এবং নিজের অধিকার প্রতিষ্ঠায় সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন৷

সাধারণ জনগণের অধিকার যাতে লঙ্ঘিত না হয়, সেজন্য জাতিসংঘকে ‘ইন্টারন্যাশনাল বিল অফ ডিজিটাল রাইটস' তৈরি করার কথা বলেছেন লেখকরা৷ এমন একটি কনভেনশনে প্রতিটি সরকারকে সই করার আহ্বানও জানিয়েছেন তাঁরা৷

এপিবি/জেডএইচ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়